টাঙ্গাইলে নিহত ফারুকের স্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন |

 বিশেষ প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামীলীগ নেতা, মুক্তিযোদ্ধা ফারুক হত্যা মামলার আসামীদের দূত গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছেন নিহত ফারুক আহমেদের স্ত্রী নাহার আহমেদ। তিনি মঙ্গলবার দুপুরে টাঙ্গাইল প্রেসকাবের বঙ্গবন্ধু অডিটরিয়ামে এক সংবাদ সম্মেলনে এই দাবী জানান। সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি বলেন, জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) এই মামলা তদন্ত করছে। ডিবির তদন্তে বের হয়ে এসেছে টাঙ্গাইলের খান পরিবারের চার সন্তান আমানুর রহমান খান রানা, জাহিদুর রহমান খান কাকন, সহিদুর রহমান খান মুক্তি ও সানিয়াত খান বাপ্পা এই হত্যা কান্ডের সাথে জড়িত। এ ব্যাপারে একাধিক আসামী এই চার ভাইয়ের সম্পৃক্ততার কথা উল্লেখ করে আদালতে জবান বন্দি দিয়েছেন। তার পর থেকে এই চার ভাই আত্মগোপনে রয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ইদানিং জনৈক মামুনুর রশিদ নামে এক ব্যক্তির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ে দেয়া অভিযোগে ফারুক হত্যা মামলার দ্রুত চার্জশিট দেওয়ার দাবী জানিয়ে এ মামলার তদন্ত নিয়ে পুলিশ আওয়ামীলীগের লোকজনকে হয়রানি সংক্রান্ত বিষয় তুলে ধরে বিভিন্ন পত্রিকায় যে সংবাদ পরিবেশিত হয়েছে তিনি তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। তিনি আরো বলেন, গোয়েন্দা পুলিশ এ মামলার সুষ্ট তদন্ত করছে। তাদের সুষ্ট তদন্তের মাধ্যমেই প্রভাবশালী খুনিচক্র চিহ্নিত হয়েছে। তিনি সুষ্ট তদন্তের মাধ্যমে পর্যাপ্ত তথ্য প্রমান সংগ্রহ করে মামলার চার্জশিট দাখিলের দাবি জানান। তিনি বলেন, আমরা অনেক অনুসন্ধান করেও স্বরাস্ট্র মন্ত্রনালয় অভিযোগকারীর অস্তিত্ব খুজে পাইনি। খুনি চক্র এই নাম ব্যবহার করে বিভ্রান্তির সৃষ্টি করছে। খুনিচক্র শুধু বিভ্রান্তি সৃষ্টি নয় তারা তদন্ত সংশ্লিষ্ট পুলিশ কর্মকর্তা ও ফারুক হতা মামলার বিচারের দাবিতে আন্দোলনকারীদের বিরুদ্ধে নানা অপপ্রচার চালাচ্ছে। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগের প্রচার সম্পাদক শরিফ হাজারী, জেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি শওকত রেজা, জার্মান আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সম্পাদক তানভীরুল ইসলাম ছোট মনি, সাবেক পৌর কাউন্সিলর সাইফুজ্জামান খান সোহেল, জেলা তাঁতী লীগের আহ্বায়ক সোলায়মান হাসানসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। উল্লেখ্য, জেলা আওয়ামীলীগ নেতা বঙ্গবন্ধু হত্যার প্রতিবাদকারী মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহমেদকে ২০১৩ সারের ১৮ জানুয়ারি শহরের কলেজ পাড়ায় নির্মমভাবে হত্যা করে। পরে নিহত ফারুকের স্ত্রী নাহার আহম্মদ বাদী হয়ে টাঙ্গাইল মডেল থানায় একটা মামলা দায়ের করেন।

Print
3055 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About Jessore Express

Close