বিএনপি নেতা সিদ্দিকের পরিবার ৮ বছরেও বিচার পায়নি

তদন্ত কর্মকর্তার অর্থ বানিজ্যে মুখ থুবড়ে পড়ে মামলা!
আতিকুর রহমান টুটুল, ঝিনাইদহ :
ঝিনাইদহ জেলা বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ও সাবেক সদর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবু বকর সিদ্দিকের অষ্টম মৃত্যু বার্ষিকী আজ ২৫ জুন। ২০০৭ সালের ২৫ জুন সন্ধ্যা রাতে বিএনপি নেতা ও সাবেক পৌর কাউন্সিলর আবু বকরকে সন্ত্রাসীরা বোমা হামলা চালিয়ে ব্যাপারীপাড়াস্থ নিজ বাসার পাশেই হত্যা করে। দিবসটি পালনে জেলা বিএনপি ও মরহুমের পরিবার বিস্তারিত কর্মসুচি গ্রহন করেছেন।
এদিকে তদন্তকারী পুলিশ কর্মকর্তার গাফলতি ও অর্থ বানিজ্যের কারণে ঘাতকরা এই মামলা থেকে রেহাই পেয়ে যাওয়ায় ৮ বছরের সিদ্দিকের পরিবার ন্যায় বিচার পান নি। নিহত’র স্ত্রী সাজেদা খাতুন জানান স্বামী হত্যার পর নিরাপত্তার কারণে মামলা পর্যন্ত করতে পারেনি। পুলিশ বাদী হয়ে মামলাটি করলেও তার ছিল ত্র“টিপূর্ণ এবং তদন্তে অবহেলায় ভরা। ঝিনাইদহ সদর থানার তৎকালীন এসআই আবুল কাসেম মামলাটি নিয়ে ব্যাপক বানিজ্যে লিপ্ত হন বলে তার ছেলে মোঃ জহির উদ্দীন শিমুল অভিযোগ করেন। তিনি জানান রাজনৈতিক কারণে চরমপন্থি দলের ভাড়াটিয়া ক্যাডার দিয়ে তার পিতাকে হত্যা করা হয়। কিন্তু যারা হত্যার মুল নায়ক বা পরিকল্পনাকারী তাদের বাদ দিয়ে পুলিশ নীরিহ ব্যক্তিদের মামলায় আসামী করেন। ছেলে শিমুল আরো জানান তার পিতা স্বৈরাচার এরশাদ সরকারের আমলে একাধিকবার জেল খেটেছেন বিএনপি করার কারণে। অথচ নিরাপরাধ এই মানুষটির বিচার আজো আমরা পেলাম না। পিতাকে হত্যার পর এখনো পরিবারটি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলে শিমুল জানান। পুলিশের একটি সুত্র জানায় সিদ্দিক হত্যার পর পরিবারের কেও মামলার বাদী হয়নি। ফলে পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নিযুক্ত হন এসআই আবুল কাসেম। তিনি দীর্ঘ তদন্ত শেষে ৯ জনকে আসামী করে আদালতে চার্জসীট দাখিল করেন। এরপর আবু বকর সিদ্দিকের পরিবার থেকে চার্জসীটের বিরুদ্ধে নারাজি পটিশিন দনে। পরবর্তীতে আবারো ওই ৯ জনকেই আসামী করে পুনরায় তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করে পুলিশ। সিদ্দিক পরিবার থেকে অভিযোগ করা হয়েছে মামলাটি নিয়ে চরম ভাবে খেলা করা হয়েছে। অর্থের বিনিয়মে পুলিশ ইচ্ছেমত আসামী করেছে এবং বাদ দিয়েছে। তাদের সন্দেহের তালিকায় কথিত এ সব আসামী না থাকার কথা পুলিশকে জানানো হলেও তদন্ত কর্মকর্তা তা অগ্রাহ্য করে ইচ্ছে মতো আসামী বানিয়েছে বলে ছেলে শিমুল অভিযোগ করেন। তিনি ন্যায় বিচার দাবী করে প্রকৃত ঘাতকদের বিচার বিচারের কাঠগড়ায় আনার দাবী জানান। এদিকে বিএনপি নেতা আবু বকর সিদ্দিক হত্যার ৮ম মৃত্যুবার্ষিকী পালন উপলক্ষ্যে আজ বৃহস্পতিবার ঝিনাইদহ জেলা বিএনপি বিস্তারিত কর্মসুচি গ্রহন করেছে। কর্মসুচির মধ্যে রয়েছে বিকালে কালো ব্যাজ ধারন, মিলাদ মাহফিল ও আলোচনা সভা। সিদ্দিক পরিবারের পক্ষ থেকে ব্যাপারীপাড়ার বাসভবনে দিবসটি পালনে রয়েছে নানা আয়োজন।

Print
948 মোট পাঠক সংখ্যা 3 আজকের পাঠক সংখ্যা

About Jessore Express

Close