মণিরামপুরে নয়জন ম্যাস হিস্টিরিয়ায় আক্রান্ত

যশোর এক্সপ্রেস ডেস্ক: মণিরামপুর উপজেলার দেবীদাসপুর গ্রামে ম্যাস হিস্টিরিয়ায় আক্রান্ত হয়েছেন একই পরিবারের নয় সদস্য। তবে তারা আধুনিক চিকিৎসা না নিয়ে অজ্ঞতাবশত গ্রাম্য কবিরাজের শরণাপন্ন হয়েছেন। ম্যাস হিস্টিরিয়ায় আক্রান্তরা হলেন আবদুর রাজ্জাক, তার স্ত্রী রহিমা, ১১ বছরের শিশুসন্তান জিহাদ, জিহাদের ছোটভাই জিয়ারুল, তার চাচাতো ভাই জাহিদ, জিহাদের দাদি জোহরা খাতুন, মেজ চাচি মর্জিনা, মর্জিনার ছেলে আবু তাহের ও জিহাদের ফুফু রওশনারা। এদের মধ্যে বেশি অসুস্থ হয়ে পড়েছেন জিহাদ ও তার মা রহিমা বেগম। আক্রান্তদের গায়ে জ্বালা পোড়া, দম বন্ধ হয়ে আসা, বুকে চাপ অনুভূত হওয়া এবং খিচুনিসহ বিভিন্ন উপসর্গ দেখা দিচ্ছে।
‘অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত হয়েছে’ মনে করে আশপাশের গ্রামের লোকজন বাড়িটিতে ভিড় জমাচ্ছে। খবর পেয়ে সরেজমিন দেখা যায়, বাড়িটিতে অনেক লোকের ভিড়। জানতে চাইলে অসুস্থ হয়ে পড়া পরিবারটির সদস্যরা বলছেন, তারা কবিরাজি চিকিৎসা নিচ্ছেন। হাসপাতাল বা কোনো কিনিকে চিকিৎসা নেননি। খবর পেয়ে গত রোববার সন্ধ্যায় ওই বাড়িতে যান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক অনল রায়। তিনি অসুস্থ জিহাদ ও তার মা রহিমাকে হাসপাতালে ভর্তি করাতে বললেও পরিবারের লোকজন তাতে রাজি হননি।
এসময় ডা. অনল রায় জানান, এরা ম্যাস হিস্টিরিয়ায় আক্রান্ত হয়েছেন। পরিবারের একজন অসুস্থ হওয়ার পর অন্যরা ভয়ে আক্রান্ত হয়েছেন। ম্যাস হিস্টিরিয়ায় এমনটিই হয়। তবে এতে কেউ মারা যাবে না; তবে আধুনিক চিকিৎসা নেওয়া উচিত বলে মত দেন ডা. অনল।

Print
3055 মোট পাঠক সংখ্যা 5 আজকের পাঠক সংখ্যা

About Jessore Express

Close