ছবি: সংগৃহীত

ফেসবুকের কল্যাণে আইসক্রিম বিক্রেতার স্বপ্নপূরণ

যশোর এক্সপ্রেস ডেস্ক: সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের কল্যাণে স্বপ্নপূরণ হলো মাগুরার দরিদ্র আইসক্রিম বিক্রেতা গোপালদার। তিনি পেয়ে গেছেন তার স্বপ্নের গাড়ি। ‘প্রিয় ফেরিওয়ালা আমাদের গোপালদা’ নামে একটি ফেসবুকের প্রায় সাড়ে ৩শ বন্ধু তহবিল সংগ্রহ করে তার জন্য কিনে দিয়েছেন অত্যাধুনিক একটি আইসক্রিম ট্রলি। গাড়িটি গোপালের হাতে আনুষ্ঠানিক ভাবে তুলে দেয়া হয়েছে। মাগুরা শহরের পারনান্দুয়ালি গ্রামের বাসিন্দা গোপাল বিশ্বাস দীর্ঘ ৫০ বছর ধরে মাগুরার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কাধে ভারি বাক্স নিয়ে আইসক্রিম বিক্রি করে আসছিলেন। সেই ছোট বেলা থেকে যারা তার কাছ থেকে আইসক্রিম কিনে খেয়েছেন দেশ বিদেশের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা সেই শিক্ষার্থীরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে গ্রুপ তৈরি করে তার জন্য তহবিল সংগ্রহ করেন।

শহরের সৈয়দ আতর আলি গণ গ্রন্থাগার প্রাঙ্গণে লক্ষাধিক টাকায় তৈরি আইসক্রিম ট্রলিটি হস্তান্তর করা হয়। সেখানে ফেসবুক গ্রুপের উদ্যোক্তা সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মাগুরা জেলা সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী সাইফুল ইসলাম হিরক, সাংবাদিক আবু বাসার আখন্দ, প্রভাষক শতদল বিশ্বাস, শিউলি খন্দকার, এড. রাশেদ মাহমুদ শাহিন সহ আরো অনেক সদস্য। ফেসবুক গ্রুপের হাত থেকে মূল্যবান আইসক্রিম ট্রলিটি পেয়ে উচ্ছসিত গোপাল বিশ্বাস বলেন, ২০ বছর বয়স থেকেই আইসক্রিম বিক্রি করছি। এই দীর্ঘ ৫০ বছরে হাজার হাজার শিশুরা আমার কাছ থেকে আইসক্রিম কিনে খেয়েছে। যারা এখন অনেক বড় ও প্রতিষ্ঠিত। সেই সব শিশুরা অনেক বড় হয়েও যে তাকে মনে রেখেছে এবং তারা যে আমাকে এত ভালবাসে তা কখনো বুঝতে পারিনি। এটা আমার কাছে স্বপ্নের মতো মনে হচ্ছে। তাদের ভালবাসার এই ঋণ আমি কখনো শোধ করতে পারবো না।

‘প্রিয় ফেরিওয়ালা আমাদের গোপালদা’ গ্রুপের উদ্যোক্তা সাংবাদিক আবু বাসার আখন্দ বলেন, এখন ফেসবুক সামাজিক যোগাযোগের একটি গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম হিসেবে দাড়িয়ে গেছে। গোপালদাকে সহায়তার মাধ্যম দিয়ে এখানে ফেসবুকের ইতিবাচক দিকটিই তুলে ধরার চেষ্টা করা হয়েছে।

Print
1062 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About Jessore Express

Close