বিষ প্রয়োগে কয়েকশ’ পাখি নিধন

যশোর এক্সপ্রেস ডেস্ক: মণিরামপুরের হাকোবা গ্রামের ফসিউর রহমান নামে এক কৃষক বিষ প্রয়োগে কয়েকশ’ পাখি মেরে ফেলেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। কাউকে কিছু না জানিয়ে মসুরেেত বিষ প্রয়োগ করায় বুধবার পাখিগুলো মারা পড়ে। এই ঘটনায় ুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন গ্রামবাসী। গ্রামের লোকেরা জানান, যশোর সদর উপজেলার চাঁদপাড়া গ্রামের মৃত আকবর আলীর ছেলে ফসিউর। তিনি দীর্ঘদিন ধরে মণিরামপুরের হাকোবা স্কুলের পেছনে টংঘর বানিয়ে বসবাস করছেন। এবার তার ঘরের কাছে একখ- জমিতে মসুর চাষ করেছেন ফসিউর। খাদ্যের সন্ধানে আর দশটা েেতর মতো ফসিউরের েেতও নানা প্রজাতির পাখি যায়। পাখিতে মসুর খেয়ে ফেলায় ুব্ধ হয়ে মঙ্গলবার রাতে েেত বিষ ছিটিয়ে দেন ফসিউর। এর ফলে বুধবার সকাল থেকে ওই েেত যত পাখি গেছে, সব মারা পড়েছে। মৃত পাখির সংখ্যা কয়েকশ’ হবে।
গ্রামবাসী আরও জানান, মারা যাওয়া পাখিগুলোর মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন প্রজাতির কবুতর, ঘুঘু, শালিক প্রভৃতি।
হাকোবা গ্রামের তারেক ও আশিকুর জানান, মারা যাওয়া কবুতরগুলোর মধ্যে তারেকের দশটি, ইফাতের সাতটি, আশিকুরের দুটি, ভুট্টোর ১২টি, কাকনের সাতটি, জাহিদের সাতটি, মেহেদীর আটটি, ময়নার সাতটি, আশরাফুলের তিনটি, ইমরানের ছয়টি ও মামুনের আটটি। মৃত অন্য পাখিগুলো বন্য। এদিকে, কয়েকশ’ পাখি মারা যাওয়ায় গ্রামবাসী ুব্ধ হয়ে উঠলে ফসিউর বিপদ আঁচ করতে পেরে তড়িঘড়ি থানায় হাজির হন। তিনি ঘটনার জন্য হাকোবা গ্রামের তালেব ও রফিকুলকে দায়ী করে পুলিশে অভিযোগ করেন। এই দু’জন তাকে পিটিয়েছেন বলেও অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন। অন্যদিকে, মৃত কবুতরগুলো বুধবার বিকেলে থানায় এনে ফসিয়ারের বিচার দাবি করেন হাকোবা গ্রামের কয়েক যুবক। মণিরামপুর থানার ওসি তাহেরুল ইসলাম বলেন, ‘এএসআই মুরাদকে বিষয়টি খতিয়ে দেখে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করতে বলেছি।’

Print
916 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About Jessore Express

Close