সুন্দরবনে ‘বন্দুকযুদ্ধে দস্যুনেতা’ নিহত

যশোর এক্সপ্রেস ডেস্ক: বাগেরহাটে পূর্ব সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জে কথিত বন্দুকযুদ্ধে একজন নিহত হয়েছেন, যিনি বনদস্যু ‘শিপনবাহিনীর প্রধান’ ছিলেন বলে র‌্যাবের দাবি। র‌্যাব-৮ এর অধিনায়ক লেফটেনেন্ট কর্নেল ফরিদুল আলম বলছেন, বুধবার ভোর ৬টার দিকে মৃগমারী খাল এলাকায় এ গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। তিনি বলেন, নিহত শিপনকে (৩২) স্থানীয় জেলেরা বনদস্যু ‘শিপনবাহিনীর’ প্রধান বলে শনাক্ত করেছেন।

“শিপন আট/দশ জনের একটি দল গঠন করে নিজের নামে দস্যুবৃত্তি চালিয়ে আসছিল। সুন্দরবনে জেলে-বাওয়ালীদের কাছ থেকে চাঁদাবাজি, মাছ ও জাল লুটসহ অপহরণের পর মুক্তিপণ আদায়ের বহু অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।” লেফটেনেন্ট কর্নেল ফরিদ কল্যাণকে বলেন, নিয়মিত টহলের অংশ হিসেবে র‌্যাব-৮ এর একটি দল মঙ্গলবার বিকেলে মৃগমারি খাল এলাকায় যায়। সেখানে জেলেদের কাছে তারা শিপনের ওই এলাকায় অবস্থানের খবর পান। এরপর খালের কাছে ওই এলাকা ঘিরে ফেলেন র‌্যাব সদস্যরা।

“হ্যান্ড মাইকে বার বার ঘোষণা দিয়ে দস্যুদের আত্মসমর্পণ করতে বলা হয়। সারা রাত এলাকাটি ঘিরে রাখা হলে ভোর সাড়ে ৫টার দিকে দস্যুরা র‌্যাবের দিকে গুলি ছুড়তে শুরু করে। র‌্যাবও পাল্টা জবাব দেয়। প্রায় চল্লিশ মিনিট গোলাগুলির পর দস্যুরা পিছু হটে গেলে বনে তল্লাশী চালিয়ে দস্যুদের আস্তানার সন্ধান পাওয়া যায়। সেখানেই শিপনের গুলিবিদ্ধ লাশ পাওয়া যায়।”ঘটনাস্থল থেকে ১৮টি দেশি-বিদেশি আগ্নেয়াস্ত্র, দুই শতাধিক গুলি ও ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে বলে র‌্যাব কর্মকর্তা ফরিদ জানান।

তিনি বলেন, আগ্নেয়াস্ত্র ও অন্যান্য মালামাল বাগেরহাটের মংলা থানায় হস্তান্তর করা হবে। এর আগে সোমবার রাতেও খুলনার কয়রা উপজেলায় পশ্চিম সুন্দরবনের বাদুরঝুলি খালে বনদস্যুদের সঙ্গে র‌্যাবের গোলাগুলি হয়। পরে মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলন করে বাদুরঝুলি থেকে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র উদ্ধার ও বনদস্যু ‘ইলিয়াস বাহিনীর’ সদস্য শাহীনুর রহমানকে (৩৪) আহত অবস্থায় আটক করার কথা জানানো হয়।

Print
773 মোট পাঠক সংখ্যা 3 আজকের পাঠক সংখ্যা

About Jessore Express

Close