সুন্দরবন রক্ষায় কঠোর কর্মসূচির হুঁশিয়ারি আনু মুহাম্মদের

যশোর এক্সপ্রেস ডেস্ক: অবিলম্বে সরকার সুন্দরবন ধ্বংসকারী রামপালে বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপন বন্ধ না করলে কঠোর কর্মসূচি দেওয়ার হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন তেল গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত এক সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।

মিথ্যাচার ও প্রতারণা বন্ধ করে সুন্দরবন ধ্বংসকারী এ প্রকল্প বাতিলের দাবিতে সমাবেশের আয়োজন করে তেল গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি। সরকারকে উদ্দেশ্য করে আনু মুহাম্মদ বলেন, সুন্দরবনকে নিয়ে মিথ্যাচার ও প্রতারণা বন্ধ করুন। সুন্দরবনকে নিয়ে গত কিছুদিন ধরে আপনাদের অতিরিক্ত সক্রিয় দেখতে পাচ্ছি। অনতিবিলম্বে যদি সুন্দরবন ধ্বংসকারী রামপালে বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপন বন্ধ না করা হয়, তা হলে ১৪ নভেম্বর জাতীয় কনভেনশনের মাধ্যমে কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

সুন্দরবন রক্ষার দাবিতে বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির শান্তিপূর্ণ রোডমার্চে বাঁধা দিয়ে সরকার জনগণকে বুঝাতে সক্ষম হয়েছে যে, সুন্দরবন রক্ষার দাবিতে যে কোন আন্দোলনে সরকার ভীতসন্ত্রস্ত। সরকার সুন্দরবনকে নিয়ে একের পর মিথ্যাচার করছে দাবি করে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের এই অধ্যাপক বলেন, ‘মিথ্যাচার করে সরকার ক্রমান্বয়ে সুন্দরবনকে হত্যার চেষ্টা করছে।’ কতিপয় দস্যু এবং লুটেরা ছাড়া সরকার দলীয় অনেক নেতাকর্মীও সুন্দরবন ধ্বংসকারী এই প্রকল্পের বিরোধী বলেও দাবি করেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ্যে করে তিনি বলেন, ‘আপনি (শেখ হাসিনা) এক হাতে পরিবেশ বিষয়ক সর্বোচ্চ পুরস্কার চ্যাম্পিয়ান অব দ্য আর্থ পেয়ে উল্লাস করবেন আরেক হাতে সুন্দরবন ধ্বংস করবেন এটা আমরা মেনে নিতে পারি না।

আয়োজক সংগঠনের আহ্বায়ক প্রকৌশলী শেখ মোহাম্মাদ শহীদ উল্লাহর সভাপতিত্বে সমাবেশে আরো বক্তব্য দেন- বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক কমরেড সাইফুল হক, সিপিবি বাসদের কেন্দ্রীয় নেতা রুহিন হোসেন প্রিন্স ও বাসদের কেন্দ্রীয় নেতা বজলুর রশিদ ফিরোজ প্রমুখ।

Print
730 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About Jessore Express

Close