বেনাপোলে হাতকড়াসহ পালানো অস্ত্র ব্যবসায়ী বন্দুকযুদ্ধে নিহত

যশোর এক্সপ্রেস ডেস্ক: বেনাপোলে পুলিশের কাছ থেকে হ্যান্ডকাপ পরা অবস্থায় পালিয়ে যাওয়া অস্ত্র মামলার আসামী ইলিয়াস ওরফে সাগর মৃধা (৩২) পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছে। এ সময় তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে। একইসাথে জব্দ করা হয়েছে দুটি রিভলবার ও একটি মোটরসাইকেল। বৃহস্পতিবার ভোর ৪ টার দিকে বেনাপোলের পুটখালী ইউনিয়নের বারোপোতা গ্রামের চারাবটতলা নামক স্থানে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ইলিয়াস রাজবাড়ি সদর এলাকার কারচন্দ্রপুর গ্রামের সুরুজ মোল্লার ছেলে। বেনাপোল পোর্ট থানার ওসি অপূর্ব হাসান জানিয়েছেন, মঙ্গলবার বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশ ইলিয়াস ওরফে সাগর মৃধাকে আটক করে। এসময় তার কাছ থেকে ৭.৬৫ বোরের পিস্তল, দুটি ম্যাগজিন ও এক রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়। বুধবার দুপুরে তাকে আদালতে নেবার সময় পুলিশের গাড়িটি বেনাপোলের কাগজপুকুর এলাকায় দুর্ঘটনায় পতিত হয়। এতে গাড়িতে থাকা এসআই ফিরোজ, কনস্টেবল ডালিম, মিজান ও পিকআপ ভ্যানচালক আমীর হামজা আহত হন। এ সুযোগে হ্যান্ডকাপ পড়া অবস্থায় আসামি ইলিয়াস পালিয়ে যায়।

তিনি আরো জানান, ঘটনার পর থেকে বেনাপোল ও শার্শা সীমান্তে সাঁড়াশি অভিযান চালায় পুলিশ। রাত দুইটার দিকে মোটরসাইকেল চালিয়ে পুটখালী সীমান্তে যাওয়ার পথে বারপোতা এলাকায় তাদের মোটরসাইকেল থামালে পুলিশের উদ্দেশে কয়েক রাউন্ড গুলি ছোড়ে সন্ত্রাসীরা। এ সময় পুলিশ আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায়। ইলিয়াস গুলিবিদ্ধ হলে তার সহযোগীরা পালিয়ে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এছাড়া ঘটনাস্থল থেকে একটি মোটরসাইকেল ও দুটি রিভলবার উদ্ধার করা হয় বলে জানান তিনি।যশোরের পুলিশ সুপার আনিছুর রহমান জানান, ইলিয়াস একটি মামলার ১০ বছরের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি। এছাড়া তার বিরুদ্ধে তিনটি হত্যা ও অস্ত্র মামলাসহ একাধিক মামলা রয়েছে। সে বড় ধরণের অস্ত্র ব্যবসায়ী হিসেবে পরিচত।

Print
990 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About Jessore Express

Close