শ্যামনগরের তিন গ্রামের মানুষের ঈদ আনন্দ ম্লান

এক্সপ্রেস ডেস্ক: নদী ভাঙনে ঈদের আনন্দ ম্লান হতে বসেছে সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার তিন গ্রামের মানুষের। গত কয়েক দিনের টানা বৃষ্টিতে হঠাৎ প্রবল জোয়ারে চুনা নদীর পানি ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পায়। এতে শ্যামনগর বুড়িগোয়ালিনী ইউনিয়নের দাতিনাখালী এলাকার মাসুদমোড় সংলগ্ন মোল্যা বাড়ির পাশের পানি নিষ্কাশনের স্লুইস গেটের কপাট ভেঙে যায়।
এদিকে, গেটের কপাট ভেড়ে চুনা নদীর পানি প্রবল বেগে বুড়িগোয়ালিনী ইউনিয়নের দাতিনাখালীসহ কয়েকটি গ্রামে প্রবেশ  করেছে। জোয়ারের  পানি গেট ভেঙে লোকালয়ে প্রবেশ করায় বুড়িগোয়ালিনীসহ তিন গ্রামের কয়েক হাজার মানুষ পানিবন্দি হতে যাচ্ছে বলে স্থানীয়রা জানায়।
গ্রামবাসী মফেজ উদ্দিন, রফিকুল ইসলামসহ বেশ কয়েকজন জানান, স্লুইচ গেট ভেঙে গ্রামে প্রবল বেগে পানি ঢুকছে। পানি আটকাতে হিমশিম খাচ্ছে গ্রামবাসী। আগামীকাল বৃহস্পতিবার ঈদ। কিন্তু তাদের মধ্যে ঈদের আনন্দ নেই একটুও। গেট সংলগ্ন পাউবোর বেড়িবাঁধের চার স্থানে ভয়াবহ ভাঙন ধরেছে। বাঁধের তিন অংশ ইতিমধ্যে নদীতে বিলীন হয়ে গেছে। যেকোনও সময় গেটের মত বাঁধও ভেঙে যেতে পারে। বাধ ভেঙে নদীর লোনা পানি ঢুকে এ এলাকার দাতিনাখালী, ভামিয়া, কলবাড়ী ও বুড়িগোয়ালিনীসহ ৫/ ৭ টি গ্রাম তলিয়ে যেতে পারে। ফলে ওইসব গ্রামের মানুষ দিন কাটাচ্ছে আতঙ্কে।

এদিকে, বুধবার সকাল থেকে চুনানদীর পানি গেট ভেঙে লোকালয়ে প্রবেশ করছে। স্থানীয় বুড়িগোয়ালিনী ইউপি চেয়ারম্যান ভবতোষ কুমার মণ্ডল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ সময় তিনি গ্রামবাসীদের সহযোগিতায় জিও ব্যাগ ফেলে নদীর পানি আটকানোর চেষ্টা করেন। তবে পানি আটকানোর চেষ্টা ব্যর্থ হয়।

এ বিষয় চেয়ারম্যান ভবতোষ কুমার মণ্ডল বলেন, বুড়িগোয়ালিনী ইউনিয়নের সীমানা সংলগ্ন খোলপেটুয়া ও চুনানদীর পাউবোর বেড়িবাঁধের প্রায় ১০টি স্থানে ভয়াবহ ভাটল ধরেছে। এছাড়া দাতিনাখালী মাসুদমোড় মোল্যা বাড়ির সামনের গেটটি ভেঙে পানি ঢোকায় ইউনিয়নবাসী ভাঙন আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, বিষয়টি নিয়ে তাৎক্ষণিকভাবে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেছি। এছাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকেও (ইউএনও) জানিয়েছি।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু সায়েদ মো. মনজুর আলম বলেন, চেয়ারম্যান সাহেব আমাকে বলেছেন। ইতিমধ্যে বিষয়টি নিয়ে ডিসি স্যারের সঙ্গে পরামর্শ করেছি এবং পাউবো কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। এছাড়া তাৎক্ষণিকভাবে বাঁশ, বস্তাসহ যা যা প্রয়োজন উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ম্যানেজ করা হয়েছে।

Print
853 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About Jessore Express

Close