কাজী আরেফ হত্যা: মরদেহ বহনের জন্য অ্যাম্বুলেন্স কারাগারে

যশোর এক্সপ্রেস ডেস্ক: কুষ্টিয়া জেলা জাসদের ৫ নেতা হত্যা মামলায়  তিন আসামিকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছে। পরে তাদের মরদেহ বহন জন্য তিনটি অ্যাম্বুলেন্স কারাগারে প্রবেশ করেছে। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১২ টার দিকে তিনটি অ্যাম্বুলেন্স কারাগারে প্রবেশ করে। এদিকে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হওয়া সাফায়েত হোসেন হাবিবের ছেলে মিঠুন মন্ডল বলেন, কারাগার কর্তৃপক্ষের নির্দেশে ব্যক্তিগতভাবে বাবার লাশ বহনের জন্য অ্যাম্বুলেন্স ভাড়া করেছি।

এছাড়াও দণ্ডপ্রাপ্ত আনোয়ার হোসেন এবং রাশিদুল ইসলাম ঝন্টুর স্বজনরা জানান, রাতে মরদেহ হস্তান্তর করলে সরাসরি কুষ্টিয়‍ার দৌলতপুর উপজেলার স্ব-স্ব পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে। এর আগে, ঢাকা কারাগার থেকে আসা জল্লাদ তানভীর হাসান রাজু ও হযরত আলী রাত ১১ টা ১ মিনিটে আনোয়ার হোসেন ও সাফায়েত হোসেন হাবিবকে এবং রাত ১১টা ৪৫ মিনিটে রাশিদুল ইসলাম ঝন্টুকে ফাঁসিতে ঝুঁলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করেন।

Print
393 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About admin

Close