ধর্ষণ মামলায় জামিন পেল ৭ বছরের সেই শিশু

যশোর এক্সপ্রেস ডেস্ক: ঝিনাইদহে ধর্ষণ মামলায় সজীব নামে সাত বছর বয়সী আসামিকে জামিন দিয়েছেন আদালত। ঝিনাইদহ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ-১ আদালতের বিচারক আহসান হাবিবের আদালত রোববার দুপুর ১টার দিকে তাকে জামিন দেয়া হয়। শিশু সজীব কালীগঞ্জের মোস্তবাপুর গ্রামের আব্দুল মালেকের ছেলে। সজীবের পক্ষের আইনজীবী তবিব-উর-রহমান জানান, ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার মোস্তবাপুর গ্রামে এক শিশু ধর্ষণের ঘটনার মামলার আসামি না হওয়া সত্ত্বেও থানার তৎকালীন ওসি (তদন্ত) ইউনুচ আলী (বর্তমানে চুয়াডাঙ্গা ডিবিতে কর্মরত) সাত বছরের সজীবকে আসামি করে চার্জশিট প্রদান করেন।

রোববার বেলা ১১টা থেকে ঝিনাইদহ আদালত চত্ত্বরে ধর্ষণ মামলার আসামি সজীবের জামিনের জন্য বাবা আব্দুল মালেক তাকে নিয়ে হাজির হন। এ সময় সজীবকে আদালত চত্ত্বরে খেলা করতে দেখা যায়। সে একটি ধর্ষণ মামলার আসামি- এমন সংবাদে শ’ শ’ উৎসুক জনতা ভীড় জমাতে থাকে। বেলা ১টার দিকে আসামিপক্ষের আইনজীবী তাকে আদালতে হাজির করে জামিন প্রার্থনা করলে বিচারক জামিন মঞ্জুর করেন। সে সময়ে বিচারক মৌখিকভাবে জানান,  জন্মসনদ নিয়ে আদালতে জমা দিলে তাকে এ মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়া হবে। উল্লেখ্য, গত বছরের ২৪ এপ্রিল ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার মোস্তবাপুর গ্রামের তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়। এ ঘটনায় ধর্ষিতার বাবা কালীগঞ্জ থানায় ধর্ষণের মামলা দায়ের করেন। মামলায় উল্লেখ করা হয়, প্রতিবেশী আজগর আলীর বাড়িতে সেদিন বিকেলে শিশুটি আম খাওয়ার ঝাল-মসলা আনতে যায়। এ সময় আজগর আলীর মাদরাসাপড়ুয়া ছেলে ইউসুফ আলী (১৪) তাকে ঝাল-মসলা দেওয়ার কথা বলে ঘরের মধ্যে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করে। মামলাটি তদন্ত করেন কালীগঞ্জ থানার তৎকালীন ওসি (তদন্ত) ইউনুস আলী। তিনি তদন্তশেষে ওই বছরের ৩০ জুন ইউসুফের সঙ্গে শিশু সজীবকেও আসামি করে চার্জশিট দাখিল করেন।

Print
599 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About admin

Close