বিচার বিভাগের সব ক্ষমতা নিতে চায় নির্বাহী বিভাগ : প্রধান বিচারপতি

যশোর এক্সপ্রেস ডেস্ক: নির্বাহী বিভাগ বিচার বিভাগের সব ক্ষমতা কেড়ে নিতে চাচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহা। রোববার সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি মিলনায়তনে এক অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, “এখন এক্সিকিউটিভ আমাদের কাছ থেকে সবগুলো ক্ষমতা কেড়ে নিতে চাচ্ছে।” এই চেষ্টা রুখতে আইনজীবীসহ বিচার বিভাগ সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি আহ্বান জানান প্রধান বিচারপতি। অতীতে দেখা গেছে, যখনই এ ধরনের কিছু হয়েছে, তখন আইনজীবীরা সোচ্চার হয়েছেন। কিন্তু এখন বিচার বিভাগের দিকে আইনজীবী মহল, নির্বাহী বিভাগ, বিচারপ্রার্থী-সবদিক থেকে যদি আঘাত আসতে থাকে, তাহলে বিচার বিভাগকে রক্ষা করবে কে?

মাসদার হোসেন মামলায় সুপ্রিম কোর্টের রায় অনুযায়ী ২০০৭ সালের ১ নভেম্বর বিচার বিভাগ নির্বাহী বিভাগ থেকে আলাদা হয়ে কাজ শুরু করে। তবে এখনও বিচার বিভাগের স্বাধীনতা আসেনি বলে গত বছর প্রধান বিচারপতির দায়িত্ব নেওয়ার কয়েক মাসের মাথায় বলেছিলেন এসকে সিনহা। বক্তব্যের পক্ষে যুক্তি হিসেবে নিম্ন আদালতের বিচারকদের ডিসিপ্লিনারি রুলস ও ডিসিপ্লিনারি অ্যাকশনের ক্ষমতা নির্বাহী বিভাগের হাতে থাকার কথা বলেছিলেন তিনি। জেলা পর্যায়ে ‘ঠুনকো’ অজুহাতে আইনজীবীদের আদালত বর্জনের বিষয় তুলে ধরে এক্ষেত্রে বার কাউন্সিল ভূমিকা না রাখায় তার সমালোচনা করেন প্রধান বিচারপতি।

তিনি বলেন, “আমি সবচেয়ে শ্রদ্ধেয় বিজ্ঞ আইনজীবীদের কাছে জানতে চাই- বার কাউন্সিল শুধু রাজনৈতিক সংগঠনের মতো ভোট চাওয়ার জন্য? আপনাদের অন্যায় আবদার যেগুলো হচ্ছে ডিস্ট্রিক্ট কোর্টগুলোতে সেগুলো চোখ বুঝে সহ্য করে যাবেন কি না।” এসব ঠেকাতে বার কাউন্সিলের ভূমিকা প্রত্যাশা করে তিনি বলেন, “সময় এসেছে বার কাউন্সিলের যে রুলস আছে সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়ার। কেন আপনারা এ বিষয়ে নিষ্ক্রিয় থাকছেন? “আমরা যখন বারে ছিলাম আইনজীবীরা বেশ স্ট্রং ছিলেন। বার কাউন্সিল বডিও বেশ স্ট্রং ছিল। কিন্তু আইনজীবীদের এমন অন্যায় আবদার কখনও সাপোর্ট করেনি।”

আইনজীবী সমিতির নিচতলায় বইমেলা উদ্বোধনের অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন প্রধান বিচারপতি। আইনজীবী সমিতির সহ-সভাপতি আবুল খায়েরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে ড. কামাল হোসেন, ব্যারিস্টার আমিরুল ইসলাম, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বক্তব্য রাখেন। ৩৫টি স্টল নিয়ে শুরু হওয়া এই বইমেলা চলবে সপ্তাহব্যাপী। প্র্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত মেলা উন্মুক্ত থাকবে।

Print
593 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About admin

Close