মৃত ভিক্ষুকের বাসায় লাখ টাকা!

যশোর এক্সপ্রেস ডেস্ক: বরিশাল সদরের বটতলা এলাকায় এক ভিক্ষুকের মৃত্যুর পর তার বাসায় পাওয়া গেছে নগদ প্রায় এক লাখ টাকা। নগরীর ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের হাজী আদম আলী সড়কের ভাড়া বাসায় থাকতেন ভিক্ষুক আলেয়া ওরফে তেল বুড়ি আলেয়া (৭০)। সম্প্রতি অসুস্থ অবস্থায় তাকে শের-ই-বাংলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ১১ জানুয়ারী চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। তার বাড়ি বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার বলইকাঠী গ্রামে।

ভিক্ষুক আলেয়ার ভাই এনায়েত হোসেন পেশায় দিনমজুর। তিনি জানান, তিন বছর ধরে ‘ছাড়া বাড়ীর বাবুলের ভাই সবুরের ঘরে’ ভাড়া থাকতেন আলেয়া। বাড়িভাড়া ছিল ৬০০ টাকা। নগরীর বিভিন্ন প্রান্তে দিনভর ভিক্ষা করে বেড়াতেন তিনি। সবাই তাকে ‘তেল বুড়ি’ নামে চিনত। আলেয়ার মৃত্যুর পর বুধবার প্রতিবেশীরা তার ঘরে ঢুকে অসংখ্য টাকাভর্তি পলিব্যাগ দেখতে পান। পরে ঘরের সামনে উঠানে বসেই গুণতে শুরু করেন টাকা।

প্রতিবেশী ফরিদ মিয়া জানান, বুধবার সকাল থেকে রাত পর্যন্ত চলে এই টাকা গণনা। বেশীর ভাগ ছোট অঙ্কের কয়েন ও নোট হলেও ১০০০, ৫০০ ও ১০০ টাকার নোটও ছিল উল্লেখযোগ্য সংখ্যক। গণনা শেষে মোট টাকার পরিমাণ দাঁড়ায় ৯৫ হাজার ২ টাকা। সেইসঙ্গে ঘরে ভিক্ষা করে সংগ্রহ করা প্রায় ৭০ কেজি চালও পাওয়া যায়।

ফরিদ মিয়া  আরও জানান, ওয়ার্ড কাউন্সিলর মীর জাহিদুল কবীর ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিরা আলেয়া বেগমের এই টাকা থেকে তার ১১ মাসের বকেয়া ঘরভাড়া পরিশোধ ও টাকার একাংশ দান-সাদকা করে বাকি অংশ পরিবারের সদস্যদের দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। দিন মজুর জানান আলেয়াকে গ্রামের বাড়ীতে দাফন করা হয়েছে। স্বামী মৃত মোক্তার আলী হাওলাদার।

Print
619 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About admin

Close