যশোরে বেড়েছে মটরশুঁটি চাষ

যশোর এক্সপ্রেস ডেস্ক: যশোরের বেনাপোল ও শার্শায় বিষমুক্ত সবজি মটরশুঁটি চাষ হয়েছে দ্বিগুণ। চলতি মৌসুমে মটরশুঁটির ফলনও হয়েছে ভাল। অল্প খরচে পাঁচগুণ লাভ হয় মটরশুঁটি চাষে। মটরশুঁটি চাষে কৃষকরা হচ্ছেন লাভবান। বাড়ছে চাষ। গত বছর মাত্র ২০ হেক্টর জমিতে হয়েছিল মটরশুঁটির চাষ। চলতি মৌসুমে বেনাপোল ও শার্শায় তা দাঁড়িয়েছে ৫০ হেক্টরে। দিন দিন বাড়ছে মটরশুঁটির চাহিদা।

খেতে সুস্বাদু পুষ্টিগুণে ভরা মটরশুঁটি। সার কীটনাশক ও পানি ছাড়াই চাষ হয় মটরশুঁটি। প্রতি বিঘায় দুই হাজার টাকা খরচ করে বিষমুক্ত মটরশুঁটি বিক্রি করে পাওয়া যায় ২০ হাজার টাকা। ফলন হয় বিঘায় ৭ থেকে ১০ মন জানায় চাষিরা। মটরশুঁটি চাষ লাভবান হওয়ায় যশোরের বেনাপোল শার্শার বিভিন্ন এলাকায় চলতি মৌসুমে বেড়েছে মটরশুঁটির চাষ। এবার ফলন হয়েছে ভাল। এলাকার চাহিদা মিটিয়ে এখানকার উৎপাদিত মটরশুঁটি রফতানি হয় দেশের বিভিন্ন জেলা শহরে। বাজারে প্রতি কেজি মটরশুঁটি বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ৬০ টাকায়।

শার্শা উপজেলা সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মীর বক্স জানান, পুষ্টিকর এ খাদ্য আগে উপজেলায় চাষ হতো কম। তবে কৃষি বিভাগের প্রচারণা চালানোর কারণে বেড়েছে বিষমুক্ত মটরশুঁটি চাষ। বেনাপোলের চাষি নুর ইসলাম বলেন, মটরশুঁটি লাভজনক আবাদ। সবজি ক্ষেতে সেচ, বিষ, সার কিছুই লাগেনা। পাঁচগুণ লাভের ফসল মটরশুঁটি। এবার ফলন হয়েছে ভাল। লাভবান তারা। আগামীতে আরো আট বিঘা জমিতে মটরশুঁটি চাষ করবেন বলে জানান তিনি।

কৃষক আইয়ুব হোসেন বলেন, মটরশুঁটি চাষ লাভবান হওয়ায় এবার বেড়েছে চাষ। লাভ হওয়ায় ধান, পাট, আখ ছেড়ে তারা বাড়িয়েছেন মটরশুঁটি চাষ। নাভারণের সবজি ব্যবসায়ী আরিফ হোসেন বলেন, মটরশুঁটির চাহিদা বেশি, দামও ভাল। এর ফলে কৃষকরা অধিক লাভবান হচ্ছেন। নাভারণ বাজার থেকে মটরশুঁটি যায় বিভিন্ন জেলা শহরে।

Print
1981 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About admin

Close