ভিক্ষুকের ঘরে মিলল প্রায় ২ লাখ টাকা, ১৯০ শাড়ি

এক্সপ্রেস ডেস্ক: লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে হনুফা বেগম (৪৫) নামে এক ভিক্ষুকের মৃত্যুর একদিন পর তার ঘর থেকে প্রায় ২ লাখ টাকা ও ১৯০টি নতুন কাপড় পাওয়া গেছে। বৃস্পতিবার উপজেলার উত্তরপাড়ায় ভিক্ষুকের রেখে যাওয়া টাকা ও কাপড় তার ঘরের মাটির নিচে ও বিভিন্ন আসবাবপত্রের ভিতরে পাওয়া য়ায়।

জানা গেছে, উপজেলার নোয়াগাও ইউনিয়নের বইরগাইস পাটোওয়ারী বাড়ির ইসমাইল হোসেনের মেয়ে হনুফা বেগম। পিতা-মাতা মারা যাওয়ার পর বাড়ির লোকজনের অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে আশ্রয় নেয় নানার বাড়ি উত্তরপাড়ায়। কয়েকদিন যেতেই নানা-নানি মারা যায়। এরপর হনুফা বেগমের কোন অবলম্বন না থাকায় নিরুপায় হয়ে ভিক্ষা শুরু করে। মঙ্গলবার রাতে অসুস্থ হয়ে পড়েন হানুফা বেগম। হনুফার কোন আত্মীয়-স্বজন না থাকায় অনেকটা চিকিৎসার অভাবেই কয়েক ঘণ্টা পর তিনি মারা যান। পরে স্থানীয়রা তাকে দাফন করেন। হনুফার মৃত্যুর একদিন পর বাড়ির লোকজন ভাঙ্গা ঘরটির ভিতর থেকে ১৯০টি শাড়ি কাপড় এবং মাটির নিচ ছোটছোট গর্তসহ ঘরের ভিতরে হাত দিলেই বেরিয়ে আসে ১০০ থেকে ৫০০ টাকার নোট। এসব দেখতে বিভিন্ন এলাকা থেকে হাজার হাজার মানুষ ভিড় জমায়।

স্থানীয় উত্তরপাড়ার ইউপি সদস্য আবুল কাশেস সরদার জানান, হনুফা খুব ধার্মিক ছিল, ভিক্ষা করত আর ৫ ওয়াক্ত নামাজ পড়ত। তার মৃত্যুর পর ঘর থেকে ১ লাখ ৮৭ হাজার টাকা ও ১৯০টি কাপড়সহ বিভিন্ন মালামাল পাওয়া যায়। তার কোন আত্মীয় স্বজন না থাকায় বাড়ির এক লোকের কাছে এগুলো জমা রাখা হয়েছে।

Print
3734 মোট পাঠক সংখ্যা 4 আজকের পাঠক সংখ্যা

About jexpress

https://t.me/pump_upp
Close