এম আর আই মেশিন নষ্টের অজুহাতে এখনও ‘চিকিৎসাধীন’ তারেক সাঈদ!

যশোর এক্সপ্রেস ডেস্ক: এম আর আই মেশিন নষ্ট তাই রোগ নির্ণয় হয়নি, এই অজুহাতে তারেক সাঈদ আজ রোববারও ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ‘চিকিৎসাধীন’ ছিলেন। তবে কারাবিধি লঙ্ঘন করছেন কি না তা দেখতে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের কারাধ্যক্ষ নেসার আলম আজ তারেক সাঈদের কক্ষ পরিদর্শন করেছেন। গত ৩ জানুয়ারি বুকে ব্যথার অভিযোগ করায় কারা কর্তৃপক্ষ নারায়ণগঞ্জে সাত খুন হত্যা মামলার অভিযোগপত্রভুক্ত আসামি তারেক সাঈদকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান। পরে ‘পিঠে ব্যথা’ ওঠায় নিউরোসার্জারিতে ভর্তি হন।

নিউরোসার্জারির বিভাগীয় প্রধান মো. জিল্লুর রহমান আজ গণমাধ্যমকে বলেন, ‘ওনার কোমরের একটা এম আর আই করতে দেওয়া হয়েছে। হাসপাতালের যন্ত্রটি বেশ কিছুদিন ধরে নষ্ট। আমরা বাইরের কোনো একটি সরকারি হাসপাতালে পরীক্ষাটা করানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি। বিশেষ ধরনের বন্দী হওয়ায় তাঁকে বাইরে পাঠাতে কিছুটা সময় লাগছে।’ কারাধ্যক্ষ নেসার আলম জানিয়েছেন, তারেক সাঈদ প্রথম শ্রেণির বন্দী হওয়ায় কিছু বিশেষ সুবিধা পাচ্ছেন। প্রথম শ্রেণির কর্মকর্তা বরখাস্ত হলেও বিচার চলার সময় বিশেষ সুবিধা পান। শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত কক্ষে থাকার সুযোগ পান কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তারেক সাঈদ কোথায় থাকবেন তা ঠিক করেছেন। এ বিষয়ে তাঁর কিছু বলার নেই। তারেক সাঈদ কারাবিধি লঙ্ঘন করছেন কি না মূলত তা দেখতেই তিনি আজ পরিদর্শনে গিয়েছিলেন বলে জানান। তাঁর চোখে কোনো অসংগতি ধরা পড়েনি বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

Print
1415 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About admin

Close