ঋষিপল্লী হামলায় জড়িতদের দ্রুত আটকের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

যশোর এক্সপ্রেস ডেস্ক: যশোরের মণিরামপুর উপজেলার পাড়ালা ঋষিপল্লীর হামলার ঘটনায় জড়িতদের আটক ও ভুক্তভোগীদের নিরাপত্তার দাবি জানিয়েছেন পূজা উদযাপন পরিষদ ও হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের নেতৃবৃন্দ। গতকাল সোমবার প্রেসক্লাব যশোরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তারা এ দাবি জানান। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন যশোর জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক দীপঙ্কর দাস রতন। সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ঋষি স¤প্রদায়ের মেয়েদের উত্যক্ত ও মারপিটের ঘটনা এবং অতঃপর ঋষি পল্লীতে হামলা আমাদেরকে উদ্বিগ্ন করে তুলেছে। প্রতিবাদ করায় এমন হামলার শিকার হতে হবে এটা কখনোই কাম্য নয়। তিনি বলেন, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আহ্বায়ক আবু সাঈদ ও ইব্রাহিমের নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা গত শনিবার হামলা চালিয়ে কয়েকটি বাড়ি ভাংচুর, অগ্নিসংযোগ এবং অন্তত ৭জনকে মারপিট করে আহত করে। হামলায় ঋষিপাড়ার মন্দিরও বাদ যায়নি।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরো বলেন, ঘটনার পরপরই পুলিশের তৎপরতা ও পবর্তীতে স্থানীয় সংসদ সদস্য স্বপন ভট্টাচার্য, জেলা প্রশাসক ড. হুমায়ুন কবীর, পুলিশ সুপার আনিসুর রহমানসহ প্রশাসনের পদস্থ কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করায় ক্ষতিগ্রস্তরা স্বস্তি পেয়েছেন। প্রশাসনের কর্মকর্তাদের এ তৎপরতায় এখন পর্যন্ত আমরাও কমিউনিটি লিডার হিসেবে সন্তুষ্ট। তবে ঋষিপাড়ার বাসিন্দাদের সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। একইসাথে জড়িতদের দ্রুত আটক করতে হবে। যাতে ভবিষ্যতে এ ধরণের ঘটনা না ঘটে। সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, প্রশাসন যদি হামলাকারী ও তাদের নেপথ্যের মদদদাতাদের আটকে ব্যর্থ হয় তাহলে লাগাতার কর্মসূচি গ্রহণ করা হবে। সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ যশোরের সাধারণ সম্পাদক সন্তোষ দত্ত, পূজা পরিষদ নেতা দুলাল সমাদ্দার, দেবেন ভাস্কর, যোগেশ দত্ত, শ্রাবণী সুর, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ নেতা মিলন ঘোষাল, রবিন পাল, সদর উপজেলার যুগ্ম সম্পাদক তিমির ঘোষ জয় প্রমুখ।

Print
1450 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About admin

Close