অস্কার যাত্রাপথে লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও

লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও, যার পুরো নাম লিওনার্দো উইলহেম ডিক্যাপ্রিও। ১৯৭৪ সালের ১১ নভেম্বর জন্মেছিলেন তিনি। নিঃসন্দেহে হলিউডের সেরা অভিনেতাদের একজন ডিক্যাপ্রিও। তিনি তার অনবদ্য অভিনয়ের জন্য বহুবার সেরা অভিনেতার মনোনয়ন পেয়েছেন এবং তিনটি গোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ড জিতেছেন। বর্তমানে সিনেমায় ব্যস্ত সময় কাটালেও হয়তো অনেকেই জানেন না, তিনি তার অভিনয় জীবন শুরু করেন টিভি বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে। পরে বিশ্বব্যাপী বিপুল পরিচিত লাভ করেন ‘টাইটানিক’ চলচ্চিত্রে জ্যাক ডসন চরিত্রে অভিনয়ের করে। এরপর তিনি অনেকগুলো সফল চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন।

েিেি২০০২ সালে তিনি জীবনীমূলক চলচ্চিত্র ‘ক্যাচ মি ইফ ইউ ক্যান’ এবং ঐতিহাসিক চলচ্চিত্র ‘গ্যাং অফ নিউইয়র্ক’ ছবিতে অভিনয় করেন লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও। ‘গ্যাংস অফ নিউ ইয়র্ক’ ছবির মাধ্যমে ডিক্যাপ্রিও পরিচালক মার্টিন স্কোরসেজির সাথে জুটি গড়ে তোলেন যা পরবর্তীতে বেশকিছু সফল চলচ্চিত্রের নেপথ্যে ছিল। ২০০৬ সালে তিনি সেরা অভিনেতা হিসেবে অস্কার মনোনয়ন পান ‘ব্লাড ডায়মন্ড’ ছবির জন্য। ডিক্যাপ্রিও ২০১০ সালে বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনি চলচ্চিত্র ‘ইনসেপশন’ ছবিতে অভিনয় করেন। তিনি ২০১৩ সালে ‘দ্য উলফ অফ ওয়ালস্ট্রিট’ ছবির জন্য আবারও একাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন পান।

মিেএরপর তিনি অভিনয় করেন বাস্তব ঘটনা অবলম্বনে নির্মিত ‘দ্য রেভেন্যান্ট’ ছবিটিতে। গত ৮ জানুয়ারি মুক্তি পেয়েছিল হিউ গ্লাসের বেঁচে থাকার লড়াইয়ের কাহিনীর ছবি ‘দ্য রেভেন্যান্ট’। ছবিতে হিউ গ্লাসের চরিত্রে অভিনয় করেছেন হলিউডের মেধাবী অভিনেতা লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও। চরম প্রতিকূল পরিবেশে দৃশ্যগুলোকে যথাসম্ভব বাস্তব রূপ দিতে প্রচুর খেটেছেন ডিক্যাপ্রিও। অভিনয় প্রায় সংলাপবিহীন হলেও তিনিই মূল চরিত্র। ছবির কাহিনী এমন: জনমানবহীন হিমশীতল পরিবেশে যেখানে বুনো ভালুকের আচমকা আক্রমণ, সেখানে মারাত্মকভাবে আহত হলেন কিংবদন্তি অভিযাত্রী হিউ গ্লাস। দলের অন্যান্যরা তাকে মৃত ভেবে একা ফেলে চলে যায়। হয়তো যন্ত্রণাদায়ক মৃত্যুই অবধারিত ছিল তাঁর, কিন্তু বেঁচে থাকার লড়াইয়ে হার মানেন নি তিনি। কঠিন বিপদের মধ্যেও চালিয়ে গেছেন বেঁচে থাকার অদম্য চেষ্টা। তিনি সংকল্প নিয়েছিলেন ফিরে যেতে নিজের প্রিয়জনদের মাঝে সভ্য সমাজে। ‘দ্য রেভেন্যান্ট’ ছবির মূল বিষয়বস্তু এবং গল্পটিও কিংবদন্তিসম। অভিনেতা ডিক্যাপ্রিও দেখিয়েছেন বেঁচে থাকার ইচ্ছাটা মানুষের প্রকৃতিগত। চাইলে যেকোনো প্রতিকূলতার বিরুদ্ধে সংগ্রাম করা যায়।

েিিকিংবদন্তি অভিযাত্রী হিউ গ্লাসের জন্ম ১৮৭০ সালে যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভানিয়ায়। গহীন অরণ্য থেকে যেভাবে তিনি বেঁচে ফিরে এসেছিলেন, সেই কাহিনী অবিশ্বাস্য শোনালেও হিউ গ্লাস একাই নিজের ভাঙা পা সারিয়ে তোলেন। পিঠের ক্ষত এতটাই গভীর ছিল যে তাঁর পাঁজরের হাড় বেরিয়ে গিয়েছিল। ওই অবস্থায় ছয় সপ্তাহে ২০০ মাইল পথ পেরিয়ে অবশেষে পৌঁছাতে সমর্থ হন সভ্য সমাজে।

‘দ্য রেভেন্যান্ট’ ছবিতে কাজ করতে গিয়ে এই অভিনেতাকে কাঁচা মাংস খাওয়া, পশুর চামড়া মুড়ি দিয়ে ঘুমানো এবং বরফ-শীতল নদীতে ঝাঁপ দেওয়ার মতো কষ্টসাধ্য বিষয় শিখতে হয়েছে। সত্যিকারের হিউ গ্লাসের কষ্ট-দুর্ভোগের অন্তত অর্ধেক সহ্য করেছেন তিনি। আর তাই আগামী অস্কারের আসরে পঞ্চমবারের মত সেরা অভিনেতার মনোনয়ন পেয়েছেন ডিক্যাপ্রিও।

েীহলিউডে এখন শুধু অভিনেতা লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও’র জয়গান। ‘দ্য রেভেন্যান্ট’ ছবিতে অভিনয়ের সুবাদে বেশ কয়েকটি পুরস্কারের দেখা পেয়েছেন তিনি। অভিনেতা লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও এ বছর জয় দিয়েই যাত্রা শুরু করেছেন। একটি ছবি‘দ্য রেভেন্যান্ট’য়ে অভিনয়ের জন্য গোল্ডেন গ্লোবে সেরা অভিনেতার পুরস্কার পেয়েছিলেন তিনি। তারপর পেয়েছেন অস্কার মনোনয়ন। এরপর সম্প্রতি স্ক্রিন অ্যাক্টরস গিল্ড (স্যাগ) পুরস্কারের আসরেও সেরা অভিনেতার পুরস্কার জিতে নিলেন ডিক্যাপ্রিও।

মিেস্ক্রিন অ্যাক্টরস গিল্ড অ্যাওয়ার্ডের এটি ছিল ২২তম আসর। এই পুরস্কারের আসরের মাত্র কিছুদিন আগে ৭৩তম গোল্ডেন গ্লোব ‘ড্রামা’ বিভাগে সেরা অভিনেতার পুরস্কার ঘরে তুলেছেন ‘টাইটানিক’ তারকা লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও। এটি ছিল ডিক্যাপ্রিওর তৃতীয় গোল্ডেন গ্লোব জয়। এতগুলো জয়ের পর সম্প্রতি এই অভিনেতা ভ্লাদিমির লেনিনের চরিত্রে অভিনয়ের প্রস্তাব পেয়েছেন। বাস্তব চরিত্র হিউ গ্লাসের ভূমিকায় অভিনয় করে সিনেমা জগতে হইচই ফেলে দিয়েছেন এই অভিনেতা। এরপরেই আরও বাস্তব চরিত্রে অভিনয় করতে আগ্রহী হয়েছেন তিনি। আর তাই রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ভূমিকায় অভিনয় করতে চেয়েছেন লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও। ৪১ বছর বয়সী ডিক্যাপ্রিও বিতর্কিত নেতা ভ্লাদিমির পুতিনের মতো চরিত্রে কাজ করলে নিজের অভিনয় প্রতিভায় নতুন পালক যোগ করতে পারবেন বলে মনে করেন। তবে পুতিনের চরিত্র না পেলেও রাশিয়ার আরেক ঐতিহাসিক নেতার ভূমিকায় অভিনয়ের প্রস্তাব পেয়েছেন তিনি।

্ে্রাশিয়ার বিখ্যাত একটি স্টুডিও থেকে ৪১ বছর বয়সী ডিক্যাপ্রিও ভ্লাদিমির লেনিনের ভূমিকার জন্য মনোনীত হলেন। এই ছবি মুখপাত্র ভ্যালোরি কার্লভ বলেন, ‘ঐতিহাসিক ছবি তৈরি করা সব সময়ই একটি চ্যালেঞ্জ। ডিক্যাপ্রিওর সঙ্গে লেনিনের চেহারায় অদ্ভুত মিল। দুজনের ছবি পাশাপাশি রাখলে সেটি স্পষ্ট বোঝা যায়। আমাদের হাতে সবকিছুই মজুদ আছে যা দিয়ে তৎকালীন সময়কে ফুটিয়ে তুলতে পারব।’ এদিকে গোল্ডেন গ্লোবের পর স্ক্রিন অ্যাক্টরস গিল্ডের আসরে সেরা অভিনেতার পুরস্কার ডিক্যাপ্রিওর সামনে খুলে দিয়েছে আরেক সম্ভাবনা। সকলেই ধারণা করছেন বৈচিত্র্যময় চরিত্রে অভিনয়ের কারণে এবার হয়তো অধরা অস্কার ঝুলিতে ভরে নেবেনই অভিনেতা। তাঁর দীর্ঘদিনের বন্ধু এবং সহ অভিনেত্রী কেট উইন্সলেট নিজেও এমন আশা প্রকাশ করেছেন।

েিীকয়েকদিন আগে জমকালো এক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে হলিউডে ৭৩তম ‘গোল্ডেন গ্লোব’ পুরস্কারের আসর বসেছিল। তবে তাদের মধ্যে সবার নজর কেড়ে নেয় এক রোমান্টিক জুটি। ১৯৯৮ সালের ‘টাইটানিক’ ছবির জ্যাক ও রোজের দেখা মিলল এই আসরে। ১৫ বছর আগের সেরা রোমান্টিক জুটি কেট-ডিক্যাপ্রিও দুজনের হাতেই উঠেছে পুরস্কার, তবে আলাদা আলাদা সিনেমার জন্য। তারপরেও তাঁরা মঞ্চে উঠতেই ঝলমল করে উঠলো যেন গোটা অনুষ্ঠান। তাই সবার মুখে যেন শুধু জ্যাক-রোজের জয়গান।

েিা্িএরপর লস অ্যাঞ্জেলসে ২১তম ক্রিটিকস চয়েস পুরস্কার অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হল। সেখানেও ‘দ্য রেভেন্যান্ট’ ছবির সুবাদে সেরা অভিনেতার পুরস্কার জিতেছেন লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও। আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বিশ্বসেরা জমকালো অনুষ্ঠান অস্কারের আসর। কেট জানিয়েছেন, এই আসরে যদি ডিক্যাপ্রিও পুরস্কার না পান তাহলে খুব অবাক হবেন তিনি। সেই সঙ্গে পাঁচবার মনোনয়ন পাওয়া ডিক্যাপ্রিওকে অধরা অস্কার জেতার শুভকামনা জানিয়েছেন ৪০ বছর বয়সী এই অভিনেত্রী।

েীিএই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি আমার মতো অনেকেই চান এবারের সেরা অভিনেতা হন ডিক্যাপ্রিও। কারন তিনি এবারের অস্কার পাওয়ার যোগ্য একজন প্রার্থী। যদি এমন কিছু না ঘটে তাহলে খুব অবাক হব।’

্ীূাূউল্লেখ্য, ‘টাইটানিক’ খ্যাত জনপ্রিয় অভিনেত্রী কেট উইন্সলেট এই ছবির জন্য অস্কার জিতেছেন সেই ১৯৯৯ সালেই। কিন্তু এই ছবির নায়ক লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও এখনও পর্যন্ত এই খেতাব জিততে পারেননি। পাঁচবার অস্কারে মনোনয়ন পেলেও পুরস্কার পাননি একবারও। তাই কেট চাইছেন এবারের অস্কারে সেরা অভিনেতার পুরস্কার যেন পান ডিক্যাপ্রিও। কেটের সঙ্গে ডিক্যাপ্রিওর জন্য তাঁর অসংখ্য ভক্তেরও নিঃসন্দেহে এমন শুভকামনা রয়েছে।

Print
1415 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About admin

Close