কেশবপুরে নিখোঁজের ৫ দিন পর লাশ উদ্ধার

এক্সপ্রেস ডেস্ক: কেশবপুর থানা পুলিশ সোমবার সকালে উপজেলার সন্ন্যাসগাছা বিলের একটি সবজি ক্ষেত থেকে পুলিশ আব্দুস সাত্তার (৫০) নামের এক কৃষকের লাশ উদ্ধার করেছে । সে গত ৫ দিন ধরে নিখোঁজ ছিলো বলে থানা পুলিশ ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে। পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য যশোর মর্গে প্রেরণ করেছে। থানা পুলিশ জানায়, গত ৩ ফেব্রয়ারী বিকেলে কেশবপুর উপজেলার ভেরচি গ্রামের কেরামত আলি মোড়লের ছেলে কৃষক আব্দুস সাত্তার মোড়ল নিখোঁজ হয়। তাকে কোথাও খুঁজে না পাওয়ায় পরের দিন তার ছেলে স্থানীয় ওয়ার্ড ছাত্রলীগের যুগ্মআহ্বায়ক শহিদুল ইসলাম থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেন।

শহিদুল ইসলামের অভিযোগ, গত ৩ ফেব্রুয়ারী পূর্ব শত্রুতার জের ধরে তাকে ও তার পিতা আব্দুস সাত্তারকে একই গ্রামের যুবলীগ নেতা মাহাবুব, হাবিব, শাহাদাতসহ ১০/১২ জন সন্ত্রাসী মারপিট করে। এ ঘটনায় সন্ধ্যায় সে বাদি হয়ে থানায় অভিযোগ করলে পুলিশ যুবলীগ নেতা মাহাবুরকে আটক করে। নানা দেন দরবার শেষে থানা কর্তৃপক্ষ রাতে আটক মাহাবুরকে ছেড়ে দেয় এবং ওই রাতেই তার পিতা আব্দুস সাত্তার নিখোঁজ হয়। এ ঘটনার ৫দিন পর সন্ন্যাসগাছা বিলের শ্মশানের পাশের একটি সবজি ক্ষেতের মধ্যে একটি লাশ পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসি পুলিশকে খবর দিলে ঘটনাস্থল থেকে তার পিতার লাশ উদ্ধার করে এবং পাশে থাকা ছিপি আটা কীটনাশক বোতল  জব্দ করে থানায় নিয়ে আসেন । তিনি আরও জানান, রাজনৈতিক ও সম্পত্তি নিয়ে বিরোধে আমার পিতার হত্যাকান্ড সংঘটিত হয়েছে। নিহতের সুরতহাল প্রস্তুতকারি থানার এসআই শাহাজান জানান, সাত্তার মোড়লের মৃত্যুর ঘটনায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। তবে ময়না তদন্ত রিপোর্ট পাওয়ার পর আইনগত ব্যাবস্থা নেয়া হবে।

Print
1393 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About admin

Close