গদখালিতে সাতদিনে বিক্রি ১৩ কোটি টাকার ফুল

এক্সপ্রেস ডেস্ক: বসন্ত বরণ, বিশ্ব ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে প্রায় ১৩ কোটি টাকার ফুল বিক্রি করেছেন যশোরের গদখালির ফুলচাষিরা। গত এক সপ্তাহে গদখালি ফুলবাজার থেকে এই ফুল সারাদেশে ছড়িয়ে দিয়েছেন ফুলচাষি ও ব্যবসায়ীরা। অনুকূল পরিবেশের কারণে এবার যেমন ফুলের ফলন হয়েছে, তেমনি দামও ভালো পেয়েছেন চাষিরা। এতে গতবছর রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে হওয়া ক্ষতি পুষিয়ে যাওয়ার স্বপ্ন দেখছেন তারা। তাই আনন্দে উৎফুল্ল এখানকার ফুলচাষিরা। যশোরের গদখালির ফুল চাষী ও ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার গদখালী, পানিসারা ইউনিয়নসহ বেশ কয়েকটি ইউনিয়নে বাণিজ্যিকভাবে উৎপাদিত হয় রজনীগন্ধা, গোলাপ, জারবেরা, গাঁদা, গ্লাডিওলাস, জিপসি, রকস্টিক, ক্যালেন্ডোলা, চন্দ্র মল্লিকাসহ বিভিন্ন ধরণের ফুল। চলতি ফুল মওসুমে এ অঞ্চলের চাষিরা প্রায় দেড় হাজার হেক্টর জমিতে ফুলের আবাদ করেছেন। এবছর অনুকূল আবহাওয়ায় ফুলের উৎপাদনও হয়েছে ভালো। এ কারণে ভালবাসা দিবস, বসন্ত দিবস ও ২১ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে অন্তত ২০ কোটি টাকার ফুল বেচাকেনার প্রস্তুতি নিয়েছিলেন গদখালির ফুলচাষীরা।

স্থানীয় ফুলচাষীরা আরও জানান, গত বছর রাজনৈতিক অস্থিরতা, হরতাল-অবরোধের কারণে ফুলচাষি ও ব্যবসায়ীরা মারাত্মক ক্ষতির শিকার হয়েছেন। সরবরাহ ব্যাহত হওয়ায় ক্ষেত আর বাজারে পচেছে লাখ লাখ টাকার ফুল। যাও বিক্রি হয়েছে তা পানির দরে। কিন্তু সে পরিস্থিতির পরিবর্তন হওয়ায় বিগত থার্টিফার্স্ট ও ইংরেজি নববর্ষকে ঘিরে ফুলের ভালো বেচাকেনা হয়েছে। আর বসন্ত ও ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে গদখালিতে ফুলের দাম ও চাহিদা দুটোই বেড়েছে। গদখালিতে এখন গোলাপ প্রতিপিচ ৮ থেকে ১১টাকা, গ্লাডিওলাস ৫ থেকে ১০টাকা, রজনীগন্ধা আড়াই থেকে ৩ টাকা, জারবেরা ১২ থেকে ১৫ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। গত এক সপ্তাহে গদখালিতে অন্তত ১৩ কোটি টাকার ফুলের বেচাকেনা হয়েছে। ফুলচাষিদের এই ফুল ছড়িয়ে গেছে সারাদেশে। বাংলাদেশ ফ্লাওয়ারস্ সোসাইটি সভাপতি আব্দুর রহিম জানান, বসন্ত বরণ ও ভালোবাসা দিবসকে কেন্দ্র করে ইতোমধ্যে প্রায় ১৩ কোটি টাকার ফুল বিক্রি হয়েছে। আর বেচাকেনায় সন্তুষ্ট এ অঞ্চলের চাষিরা। আর সামনে রয়েছে মহান একুশে ফেব্রুয়ারি। এ দিবসকে ঘিরেও আশানুরূপ বিক্রির প্রস্তুতি নিচ্ছেন স্থানীয় ফুলচাষি ও ব্যবসায়ীরা।

Print
1184 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About admin

Close