কেসিসি’র বরখাস্ত মেয়রের সম্পদ ক্রোকের নির্দেশ

এক্সপ্রেস ডেস্ক: খুলনা সিটি করপোরেশনের বরখাস্তকৃত মেয়র ও মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান মনিসহ ছয়জনের মালামাল ক্রোকের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বুধবার বিকেলে খুলনার মুখ্য মহানগর হাকিম এম এল বি মেছবাহ উদ্দিন আহমেদ এ নির্দেশ দেন। আদালতের জিআরও উপ-পরিদর্শক সঞ্জয় কুমার দাস এ নির্দেশের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। আদালত কর্তৃক মালামাল ক্রোকের নির্দেশপ্রাপ্ত অন্যরা হলেন, খুলনা সিটি করপোরেশনের ২০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শেখ গাউছুল আজম গাউছ, ২৭ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর কে এম হুমায়ূন কবীর, খুলনা মহানগর ছাত্রশিবিরের সাবেক সভাপতি আজিজুল ইসলাম ফারাজী, মো. শাহীন ও মো. গাউছ। আদালত সূত্র জানান, ২০১৩ সালের ১১ নভেম্বর খুলনা নগরীর পাওয়ার হাউজ মোড়ে বিএনপিসহ ২০ দলীয় জোটের অবরোধ চলাকালে পুলিশের ওপর হামলার ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনায় খুলনা সদর থানার উপ-পরিদর্শক অনুকুল চন্দ্র ঘোষ বাদী হয়ে বিএনপি-জামায়াতের ৪৫ জনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাত আরও আড়াইশ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। ২০১৫ সালের ৩০ এপ্রিল খুলনা সদর থানার উপ-পরিদর্শক তাপস কুমার পাল কেসিসি’র তৎকালীন মেয়র মনিরুজ্জামান মনিসহ ৫২ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। আদালত ২০১৫ সালের ২২ নভেম্বর ওই পাঁচজনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। কিন্তু তারা আদালতে আত্মসমর্পণ করেননি। এর আগে ২০১৫ সালের ২ নভেম্বর স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় মেয়র মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান মনিকে সাময়িক বরখাস্ত করে।

Print
781 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About admin

Close