হাতুড়ে ডাক্তারের ক্যাপসুল খেয়ে মৃত্যুর পথে!

এক্সপ্রেস ডেস্ক: শৈলকুপার ভাটই গ্রামের সুরুজ মিয়া বেশ কয়েকদিন ধরে দাঁতের সমস্যায় ভুগছিলেন। তাই গত ১৭ এপ্রিল থেকে তিনি ভাটই বাজারের ‘রাই মেডিকেল’র গ্রাম্য ডাক্তার সুভাষের পরামর্শে ক্ল্যাভুসেফ (২৫০ এম.জি) নামে ক্যাপসুল খেতে থাকেন। এরপর কালো চাকা চাকা ও ফোঁসকা হয় সুরুজ মিয়ার গোটা শরীরে। সুরুজ মিয়া জানান, ওষুধ খাওয়ার আধাঘণ্টা পরই তার শরীরে যন্ত্রণা শুরু হয়। একদিন পর শরীরের বিভিন্ন স্থানে কালো চাকা চাকা ও ফোঁসকা হতে শুরু করে। এরপর আস্তে আস্তে বাড়তে থাকে যন্ত্রণা। ক্রমেই তার শরীর খারাপ হয়ে পড়ে। পরে গত শনিবার রাতে স্ত্রী রুমা ও তার মা সুরুজ মিয়াকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে এনে ভর্তি করে। এখন ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের মেডিসিন বিশেষজ্ঞ মোকাররম হোসেনের তত্ত্বাবাধনে চিকিৎসা চলছে সুরুজ মিয়ার। এ বিষয়ে চিকিৎসক মোকাররম হোসেন বলেন, ‘ভুল চিকিৎসা ও এন্টিবায়োটিক সেবনের ফলে এমনটি হয়েছে।’ তিনি সবাইকেই এন্টিবায়োটিক ব্যবহার প্রসঙ্গে সতর্কতার পরামর্শ দিয়েছেন।

Print
1209 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About admin

Close