মাথাপিছু বৈদেশিক ঋণ ১৩ হাজার ৪৬০ টাকা: সংসদে অর্থমন্ত্রী

এক্সপ্রেস ডেস্ক: বর্তমানে মাথাপিছু বৈদেশিক ঋণের পরিমাণ ১৩ হাজার ৪৬০ টাকা (১৬৮.২৯ ডলার) বলে জাতীয় সংসদকে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। সোমবার জাতীয় সংসদের প্রশ্নোত্তরে জাতীয় পার্টির বেগম নাসরিন জাহান রতœার বৈদেশিক ঋণ সম্পর্কিত এক প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী এ তথ্য জানান। অর্থমন্ত্রী জানান, ৩০ জুন ২০১৫ তারিখে বাংলাদেশের মোট বৈদেশিক ঋণের স্থিতির পরিমাণ ২ লাখ ১২ হাজার ৫৮৪ কোটি টাকা (২৬,৫৭৩ ইউএস ডলার)। এর মধ্যে পাবলিক সেক্টরের মধ্য ও দীর্ঘ মেয়াদি স্থিতি ১ লাখ ৯১ হাজার ২০৮ কোটি (২৩,৯০১ ইউএস ডলার) এবং সরকারি গ্যারান্টেড ঋণের পরিমাণ ২১ হাজার ৩৭৬ কোটি (২,৬৭২ ইউএস ডলার)। মন্ত্রীর উপস্থাপিত তথ্য মতে উন্নয়ন সহযোগী সংস্থা বা দেশের সঙ্গে বর্তমান বিদ্যমান বৈদেশিক ঋণের (এলএমপি) চুক্তির আওতাধীন অর্থের মধ্যে রয়েছে- এডিবির স্থিতি ঋণ ৭৪০২.০২ মিলিয়ন ইউএস ডলার, পাইপলাইনে ৩২৫৭.৫৭ মিলিয়ন ইউএস ডলার। আইডিএর (বিশ্ব ব্যাংকের) স্থিতি ঋণ ১১৫৯৬.১৮ মিলিয়িন ইউএস ডলার, পাইপলাইনে ৫২১৬.৪৯ মিলিয়ন ইউএস ডলার। আইডিবির (ইসলামিক ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক) স্থিতি ঋণ ৪০৬.৩৯২ মিলিয়ন ইউএস ডলার, পাইপলাইনে ৭৩৯.০৪ মিলিয়ন ইউএস ডলার। ওপেক এর স্থিতি ঋণ ৪১.৪৯ মিলিয়ন ইউএস ডলার, পাইপলাইনে ১৫৩.৯৭ মিলিয়ন ইউএস ডলার। ইফাদের স্থিতি ঋণ ৩৩৮.৬৭ মিলিয়ন ইউএস ডলার, পাইপলাইনে ১৭০.০৩ মিলিয়ন ইউএস ডলার। চীনের স্থিতি ঋণ ৯১৭.১৯ মিলিয়ন ইউএস ডলার, পাইপলাইনে ২৬৬.৪৮ মিলিয়ন ইউএস ডলার। ভারতের স্থিতি ঋণ ২০৭.১২ মিলিয়ন ইউএস ডলার, পাইপলাইনে ৫৯৪.০৪ মিলিয়ন ইউএস ডলার। দক্ষিণ কোরিয়ার স্থিতি ঋণ ৩৫২.৫৮ মিলিয়ন ইউএস ডলার, পাইপলাইনে ২৭০.৫৫ মিলিয়ন ইউএস ডলার। এছাড়া জাপানের স্থিতি ঋণ ২০৬০.২৭ মিলিয়ন ইউএস ডলার, পাইপলাইনে ৩৫৮৬.০৫ মিলিয়ন ইউএস ডলার এবং অন্যান্য দেশ ও সংস্থার স্থিতি ঋণ ৫৭৯৯.১৩ মিলিয়ন ইউএস ডলার, পাইপলাইনে ১৪৮৫.৪২ মিলিয়ন ইউএস ডলার। সরকার দলীয় সংসদ সদস্য মজিবুর রহমান ফকিরের মৃত্যুতে রেওয়াজ অনুযায়ী সংসদের সোমবারের সব কার্যক্রম স্থগিত করা হয়। তবে প্রশ্নোত্তর পর্ব টেবিলে উপস্থাপিত হয়।

Print
935 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About admin

Close