দ্বিতীয় ময়নাতদন্তেও মৃত্যুর কারণ নেই

এক্সপ্রেস ডেস্ক: কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজের ছাত্রী ও নাট্যকর্মী সোহাগী জাহান তনুর দ্বিতীয় ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনেও মৃত্যুর কারণ উল্লেখ করা হয়নি। তবে হত্যার আগে ধর্ষণের আলামত প্রথম ময়নাতদন্তে না পাওয়া গেলেও দ্বিতীয় ময়নাতদন্তে তা পাওয়া গেছে। রবিবার দুপুরে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের বোর্ড প্রধান ডা. কামদা প্রসাদ সাহা এসব তথ্য জানান। তিনি বলেন, ‘সেক্সুয়াল ইন্টার কোর্স থেকে বিষয়টা বুঝে নিতে হবে। দ্বিতীয় দফায় ১০ দিন পর মরদেহ ময়নাতদন্ত করায় তার শরীরে আঘাতের চিহ্ন আছে কি না তা শনাক্ত করতে পারেনি বোর্ড। কারণ তার শরীর পচে গিয়েছিল। মৃত্যুর সঠিক কারণ উদঘাটন করতে পুলিশকে অধিকতর তদন্তসহ পারিপার্শ্বিক তদন্ত করতে মেডিক্যাল বোর্ড পরামর্শ দিয়েছে বলেও জানান তিনি। গত ৩০ মার্চ কবর থেকে তনুর মরদেহ তুলে দ্বিতীয় দফা ময়নাতদন্ত হয়। আদালতের নির্দেশে গঠিত তিন সদস্যের মেডিকেল বোর্ড এই ময়নাতদন্ত করে। ওই সময় তনুর শরীরের বিভিন্ন নমুনা সংগ্রহ করে ডিএনএ পরীক্ষা করায় সিআইডি। ডিএনএ পরীক্ষায় ধর্ষণের আলামত পাওয়া যায়। ওই ডিএনএ প্রতিবেদন দেওয়া হচ্ছে না- এমন অজুহাতে দ্বিতীয় ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন দিতে এত দিন কালক্ষেপণ করে মেডিকেল বোর্ড। পরে আদালতের নির্দেশে গত মঙ্গলবার মেডিকেল বোর্ডকে ডিএনএ প্রতিবেদন দেয় সিআইডি। এরপর আজ দ্বিতীয় ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন জমা দিল মেডিকেল বোর্ড।

Print
701 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About Jessore Express

Close