শিশু ফাহিম হত্যার রহস্য উন্মোচন : গ্রেফতার ৪

এক্সপ্রেস ডেস্ক: সাতক্ষীরায় শিশু ফাহিম আহমেদ (৮) হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে চারজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এরই সঙ্গে উন্মোচন হয়েছে শিশু ফাইম হত্যার রহস্য। কুশখালী গ্রামের মুজিবর রহমান, তার স্ত্রী ছফুরা খাতুন, ছেলে ইব্রাহিম হোসেন ও ইসরাফিল হোসেনকে গ্রেফতারের পর হত্যার এ রহস্য উন্মোচিত হলো।

হত্যাকাণ্ডের ঘটনার বিবরণে জানা গেছে, স্থানীয় বাজারে মুজিবর রহমানের একটি সাইকেল মেরামতের দোকান রয়েছে। গত ১৪ জুন সকালে তিনি এক কেজি গরুর মাংস কিনে শিশু ফাহিমকে দিয়ে বাড়িতে পাঠান। শিশু ফাহিম তার বাড়িতে গিয়ে কাউকে না পেয়ে বাড়ির সামনে থাকা ভ্যানের উপর ওই মাংস রেখে চলে আসে। এরপর পরিবারের সদস্যরা বাড়ি এসে দেখে মাংসের প্যাকেটটি কুকুরে টানাটানি করছে।

ক্ষিপ্ত হয়ে মুজিবর রহমান ফাহিমকে ডেকে পাঠায়। ফাহিম আসার পর মুজিবর রহমান ও তার পরিবারের সদস্যরা তাকে বেদম মারপিট করে। এতে ফাহিমের শরীরের বিভিন্ন অংশ ফেটে রক্ত বের হতে থাকে। রক্ত বন্ধ হওয়ার জন্য ফেবিকল আঠা দেয় মুজিবর ও তার পরিবারের সদস্যরা। কিন্তু তাতেও রক্ত বন্ধ না হওয়ায় কোনো উপায় না দেখে ফাহিমকে একটি বাক্সে ভর্তি করে রাখা হয়। সেই বাক্সের মধ্যেই মৃত্যু হয় শিশু ফাইমের। পরবর্তীতে গভীর রাতে ফাহিমকে পার্শ্ববর্তী পাটক্ষেতে ফেলে দেয় তারা।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সদর থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবুল কালাম আজাদ ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে। প্রসঙ্গত, দুইদিন নিখোঁজ থাকার পর গত বুধবার সন্ধ্যায় সদর উপজেলার কুশখালি সীমান্তের একটি পাটক্ষেত থেকে শিশু ফাহিমের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

Print
780 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About Jessore Express

Close