সন্তানের জন্য ৪৩ বছর ধরে রোজা রাখছেন ঝিনাইদহের এক মা

এক্সপ্রেস ডেস্ক: সংসার আর ধন সম্পদ বলতে নিজের কিছুই নেই সুখিরণ নেছার। অভাব অনটনের জীবন তাঁর। না খেয়ে থাকলেও কারো কাছে হাত পাতেন না সুখিরণ। দুঃখ কষ্ট তার নিত্য সঙ্গী। এতো অভাব আর দুঃখ কষ্টের মধ্যেও বারো মাস রোজা পালন করেন তিনি। এই রোজা রাখতে তাঁর কোন কষ্ট নেই। তিনি বলেন, সন্তানের জন্য রোজা রাখি, আল্লাহর রহমতে কষ্ট কিসের? গ্রামের প্রতিবেশি যুবক মঞ্জুর আলম জানান, পরের ক্ষেতে ঝাল, মুগ কলাই তুলে ও চানাচুর ফ্যক্টরিতে কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করেন ৬৯ বছর বয়সী সুখিরণ নেসা। সারাদিন রোজা রাখার পরও তিনি খাবারের জন্য কারো বাড়ি যান না। এই বৃদ্ধা নিজের রোজগার নিজেই করেন। তিনি এখনো নিজের কাজ নিজেই করেন। উল্লেখ্য, হারিয়ে যাওয়া ছেলের জন্য সুখিরণ নেছা মসজিদ ছুয়ে প্রতিজ্ঞা করেন। তার ছেলে পাওয়া গেলে তিনি সারা বছর রোজা রাখবেন। তাই সেই ১৯৭৫ সাল থেকেই তিনি স্থানীয় মসজিদের ইমাম হাফেজ তপু মিয়ার পরামর্শে বারো বাস রোজা রেখে যাচ্ছেন।

Print
1377 মোট পাঠক সংখ্যা 3 আজকের পাঠক সংখ্যা

About Jessore Express

Close