সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ ঠেকাতে সহযোগিতা চাই: প্রধানমন্ত্রী

এক্সপ্রেস ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী ও সংসদ নেতা শেখ হাসিনা সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদবিরোধী কার্যক্রমে জনগণের সহযোগিতা চেয়েছেন। বৃহস্পতিবার ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের ৬৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে জাতীয় সংসদে এক অনির্ধারিত আলোচনায় দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনা এই সহযোগিতার আহ্বান জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদবিরোধী কার্যক্রম নেয়ায় বাংলাদেশে আজ শান্তিপূর্ণ অবস্থা বিরাজ করছে। সে পরিবেশ আমরা সৃষ্টি করেছি। এখানে দেশবাসীর সহযোগিতা চাই। শেখ হাসিনা বলেন, সব ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করে আওয়ামী লীগ বাংলাদেশে গণতন্ত্র সুপ্রতিষ্ঠিত ও সুরক্ষিত করেছে। আর্থসামাজিক উন্নয়নের পথে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে তিনি দেশকে এগিয়ে নিয়ে জাতির পিতার স্বপ্ন বাস্তবায়ন করার আশা প্রকাশ করেন।
এ কাজে তিনি দেশবাসীর সহযোগিতা ও দোয়া কামনা করে বলেন, ‘আমরা যেন দেশের মানুষের সেবা করে যেতে পারি। উন্নত শান্তিপূর্ণ জীবন দিতে পারি।’ আওয়ামী লীগসহ সব সংসদ সদস্যকে ধন্যবাদ জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, তাঁর দল গণতন্ত্রকে সুরক্ষিত করতে পেরেছে। দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন করতে পেরেছে। ভোট দিয়ে নির্বাচিত করার জন্য তিনি দেশবাসীকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানান।
আওয়ামী লীগের ইতিহাস তুলে ধরে এই নেত্রী বলেন, আওয়ামী লীগের ৬৭ বছরের ইতিহাস একদিকে সংগ্রামের ইতিহাস, ত্যাগের ইতিহাস। অন্যদিকে দেশ স্বাধীন করার এবং স্বাধীন দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার ইতিহাস। সব সময় আওয়ামী লীগের পাশে থেকে সমর্থন দেয়ার জন্য তিনি দেশবাসীকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, দেশবাসী নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে নির্বাচিত করে আমাদের সরকার গঠন করতে দিয়েছে বলেই দেশের উন্নয়ন করতে সক্ষম হয়েছি।
আওয়ামী লীগের সভানেত্রী বলেন, অনেক ঘাত-প্রতিঘাতের মধ্যে এগোতে হয়েছে। বারবার আঘাত এসেছে। শহীদের তালিকাও যদি দেখি, তাহলে ছাত্রলীগ-যুবলীগ প্রতিটি আন্দোলনে জীবন দিয়ে গেছে। আইয়ুব, ইয়াহিয়া, জিয়া ও এরশাদের অবৈধ ক্ষমতা দখলের বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে আন্দোলন গড়ে ওঠে। প্রত্যেকটি স্বৈরাচারের গণবিরোধী কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগ লড়াই করেছে এবং বিজয় ছিনিয়ে এনে জনগণের হাতে তুলে দিয়েছে।
শেখ হাসিনা বলেন, তিনি ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে মধ্য আয়ের দেশে উন্নত করতে পারবেন বলে বিশ্বাস করেন। ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ হবে দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে একটা উন্নত দেশ। স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অধিবেশনের শুরুতে এই অনির্ধারিত আলোচনার সূত্রপাত করেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু।
Print
714 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About Jessore Express

Close