কতিপয় জ্ঞানপাপী বাঁশ ও বাঁশি নিয়ে অপব্যাখা করছে- যশোরে ডিআইজি

এক্সপ্রেস ডেস্ক: খুলনা রেঞ্জের ডিআইজি মনির-উজ-জামান বলেছেন, কতিপয় জ্ঞানপাপী বাঁশ ও বাঁশি নিয়ে অপব্যাখা করছে। তিতুমীরের আন্দোলন, ৭১’র মুক্তিযুদ্ধ ও এ অঞ্চলের চরমপন্থী প্রতিরোধে জনতা বাঁশের লাঠি হাতে তুলে নিয়েছিল। অতীতে বাঁশের লাঠি সন্ত্রাস ও নিপীড়নের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে সক্ষম হয়েছে। সোমবার দুপুরে যশোর টাউন হল ময়দানে জঙ্গী ও সন্ত্রাসবাদ বিরোধী মহাসমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, দেশের বিরুদ্ধে সকল ষড়যন্ত্র, জঙ্গীবাদ, সন্ত্রাসবাদের বিষদাঁত ভেঙ্গে সমূলে উৎপাটন করা হবে। পাকিস্তানের চার প্রকার শাসন ব্যবস্থা যারা আমদানি করতে চায় তাদের প্রশ্রয় দেওয়া হবে না। যারা বাংলাদেশের প্রেসক্রিপশন দিতে আসে, তাদের দেশে একজন মানুষ পঞ্চাশ জনকে হত্যা করলেও প্রতিরোধ করতে পারে না। তারা এদেশে শান্তি কায়েম করতে আসে। তাদেও উদ্দেশ্যে শান্তি কায়েম নয়। তারা পাকিস্তানের মত চার প্রকার শাসন ব্যবস্থা আমদানি করতে চায়। আমরা জানি কিভাবে দেশকে শাসন করতে হয়।

জেলা পুলিশ ও জনপ্রতিনিধিদের ব্যানারে আয়োজিত মহাসমাবেশে সভাপতিত্ব করেন যশোরের পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান। বক্তব্য রাখেন পৌর মেয়র জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টু, র‌্যাব-৬ অধিনায়ক খন্দকার রফিকুল ইসলাম, খুলনার পুলিশ সুপার হাবিবুর রহমান, নড়াইলের পুলিশ সুপার খন্দকার রকিবুল ইসলাম, মাগুরা পুলিশ সুপার একেএম এহসান উল্লাহ, বাগেরহাটের পুলিশ সুপার নিজামুল হক মোল্লা, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন, প্রেসক্লাব যশোরের সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অসীম কুন্ডু, জেলা কমিউনিটি পুলিশিং সভাপতি আলী আকবর, জেলা সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি ডিএম শাহিদুজ্জামান, সাবেক সভাপতি হারুণ অর রশিদ, আশ্রম রোড শান্তিশৃংখলা কমিটির নেতা ফারুক হোসেন, ১নং ওয়ার্ড কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির নেতা হারুণ অর রশিদ ফুলু। আলোচনা শেষে সমাবেশ অংশগ্রহণকারীদের হাতে বাঁশের লাঠি ও বাঁশি তুলে দেন প্রধান অতিথি ডিআইডি মনির-উজ-জামান।

Print
1045 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About Jessore Express

Close