মিতু হত্যা: জবানবন্দি শেষে ওয়াসিম, আনোয়ার কারাগারে

এক্সপ্রেস ডেস্ক: পুলিশ কর্মকর্তা বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু হত্যার ঘটনায় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে দুই আসামি ওয়াসিম ও আনোয়ার। রোববার মহানগর হাকিম হারুন অর রশিদের আদালতে এ দুই আসামি ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন। দুপুরেই এ দুই আসামিকে জবানবন্দির জন্য আদালতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছিল বলে জানিয়েছিলেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) কমিশনার ইকবাল বাহার। রাত ৯টা ৪০ মিনিটে জবানবন্দি শেষে তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত।

সিএমপি গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের সহকারী কমিশনার মো. কামরুজ্জামান গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এ সময় তিনি দাবি করেন, এ দুই আসামি হত্যার সঙ্গে জড়িত থাকার দায় স্বীকার করেছে। গতকাল শনিবার রাতেই ওয়াসিম ও আনোয়ারকে আটক করা হয়।  পরে দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে আটকদের পরিচয় দিতে গিয়ে সিএমপি কমিশনার বলেন, ‘হত্যাকাণ্ডের দিন মোটরসাইকেলে যে তিনজন ছিল, তাদের একজন হলো ওয়াসিম। সে শুট করেছে।’ ‘আর আনোয়ার রেকির দায়িত্বে ছিল, অর্থ্যাৎ রেসকিউ করার প্রয়োজন হলে যারা কাজ করবে তাদের একজন’, যোগ করেন ইকবাল বাহার।

গত ৫ জুন মোটরসাইকেলে করে আসা তিন দুর্বৃত্ত এসপি বাবুল আকতারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতুকে প্রথমে ছুরিকাঘাত ও পরে মাথায় গুলি করে হত্যা করে। সেদিন সকালে ছেলেকে স্কুলবাসে তুলে দিতে চট্টগ্রাম নগরীর জিইসি মোড়ের বাসা থেকে ঠিক ৫০ গজ দূরে এই ঘটনা ঘটে। ঘটনার সময় মিতুর স্বামী বাবুল আক্তার ঢাকায় অবস্থান করছিলেন।চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের দায়িত্বে ছিলেন বাবুল আক্তার। সম্প্রতি এসপি পদে পদোন্নতি পেয়ে তিনি ঢাকায় পুলিশ সদর দপ্তরে আসেন। ঢাকায় শ্বশুরবাড়িতে থাকতেন তিনি। বাবুল ও মিতু দম্পতির সাত বছর বয়সী এক ছেলে এবং চার বছরের একটি মেয়েসন্তান রয়েছে।

Print
1040 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About Jessore Express

Close