‘সাধ্যের মধ্যে যা পাই তা নিয়েই খুশি’

এক্সপ্রেস ডেস্ক: রোজার প্রথম দিন থেকেই জমে উঠেছে রাজধানীর ঈদের বাজার। অভিজাত শপিংমলের পাশাপাশি ফুটপাতেও বাড়ছে ক্রেতাদের ভীড়। সারাদিন ঘুরে পছন্দের পোশাকটি কিনে নিচ্ছেন ক্রেতারা। রাজধানীর বিভিন্ন শপিংমলে সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, বিভিন্ন মার্কেটে ক্রেতাদের ব্যাপক আনা-গোনা। পরিবার পরিজন নিয়ে শপিং করতে এসেছেন হাজারও ক্রেতা। পছন্দের পোশাক কিনতে দোকানে দোকানে ঘোরাঘুরিতেই ব্যস্ত তারা। গৃহবধূ লিপি আক্তার তার স্বামী ও এক সন্তানকে নিয়ে কেনাকাটা করতে এসেছেন রাজধানীর মিরপুর-১০ নম্বরে শাহআলী মার্কেটে। তিনি জানান, ‌‘শেষ মুহূর্তে অনেক বেশি ভীড় হয়, তাই এবার একটু আগেই কেনাকাটা করতে এসেছি। এখণ ভালো কাপড়ের পাশাপাশি কেনাকাটাও সহজে করতে পারবো।’

তবে গত বছরের তুলনায় এবার দামটা একটু বেশি মনে হলো তাদের। লিপি বলেন, আমরা মধ্যম আয়ের পরিবার। বেশি দাম দিয়ে কেনাকাটা করার সমর্থ নেই। তাই সাধ্যের মধ্যে যা পাই তা নিয়েই খুশি। বিভিন্ন উৎসবে নারীদের পোশাক নিয়ে বাড়তি উচ্ছ্বাস থাকলেও এবার পুরুষদের পোষাকেও যেন কমতি নেই। সমান তালেই সব বয়সীদের পোশাক বিক্রি হচ্ছে। হরেক রকম কালেকশন থাকায় পছন্দের পোশাক কিনে হাসিমুখেই ফিরছেন ক্রেতারা। বিক্রেতারা জানান, মেয়েদের নানা ডিজাইনের পোষাক এবার প্রচুর বিক্রি হচ্ছে। এবছর লং কামিজ এবং গাউনের চাহিদা যেন ফিরে এসেছে। গাউনের সঙ্গে চুড়ি ফুলস্লিভ হাতা বেশ চলছে। গ্রাইন লং ফ্রোক ছাড়াও তরুণীরা ঝুঁকছেন ‘বলিউড গাউন’র দিকে। এটি ‘ফ্লোর টাচ গাউন’। এ পোশাকটি মূলত পাশ্চাত্য ঢঙের। তবে ডিজাইনে কিছুটা পরিবর্তন ও পোশাকের সামনের দিকে জমকালো কারুকাজ দিয়ে একে ভারতীয় ঘরনার করা হয়েছে।

Print
1078 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About Jessore Express

Close