শিক্ষক নির্যাতনকারী চেয়ারম্যানের শাস্তি দাবি

এক্সপ্রেস ডেস্ক: খুলনার দাকোপ উপজেলার পল্লীতে প্রধান শিক্ষক আশিষকুমার মণ্ডলকে নির্যাতনকারী স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মিহির মণ্ডলের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন হয়েছে। বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি দাকোপ উপজেলা শাখা, মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থা, নাগরিক সমাজ ও শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে রোববার বেলা ১১টায় নগরীর পিকচার প্যালেস মোড়ে এ কর্মসূচি পালিত হয়। এ সময় অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তারা অভিযোগ করেন, কৈলাশগঞ্জ ইউনিয়নের বঙ্গবন্ধু মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আশিষকুমার মণ্ডল গত ২৫ জুন সকালে স্থানীয় বাজারে গেলে ইউপি চেয়ারম্যান মিহির মণ্ডল ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীর হামলার শিকার হন। তার মাথায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত এবং বেদম মারপিট করে মোটরসাইকেল ভাংচুর ও টাকা-পয়সা কেড়ে নেওয়া হয়। একজন শিক্ষকের ওপর ন্যাক্কারজনক হামলা হলেও দাকোপ থানায় মামলা নেওয়া হয়নি। যে কারণে ২৮ জুন খুলনার আদালতে মামলা করা হয়। বক্তারা অভিযোগ করেন, চেয়ারম্যান মিহিরের বিরুদ্ধে থানায় চাঁদাবাজি, বনদস্যুদের সঙ্গে সম্পর্ক, জমি ও ঘের দখল এবং গুমসহ অন্তত ৪০টি মামলা ও জিডি থাকলেও রহস্যজনক কারণে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে না। বক্তারা অবিলম্বে ‘সন্ত্রাসী’ চেয়ারম্যানকে গ্রেফতারের দাবি জানান। মানববন্ধন চলাকালে আয়োজিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন দাকোপ বঙ্গবন্ধু মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক সমরেশচন্দ্র রায়। অ্যাডভোকেট বাবুল হাওলাদারের পরিচালনায় কর্মসূচির সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থার সমন্বয়ক অ্যাডভোকেট মোমিনুল ইসলাম, কমিউনিস্ট পার্টির সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান বাবু, জাসদের খালিদ হোসেন, জনউদ্যোগের মহেন্দ্রনাথ সেন, ছায়াবৃক্ষের মাহবুবুল আলম বাদশা, মানবাধিকার কর্মী আজিজুর রহমান, শিক্ষকনেতা ড. অচিন্ত্য মণ্ডল, মলয়কান্তি রায়, তন্ময় রায়, গোবিন্দলাল মণ্ডল, গৌরপদ মণ্ডল, নিত্যানন্দ মণ্ডল, তপন মণ্ডল, প্রশান্ত গোলদার, দুর্গাপদ মণ্ডল, নিহাররঞ্জন রায়, পূর্ণিমা রায়, মলিনা জোয়ার্দার, কণিকা মিস্ত্রি প্রমুখ।

Print
1120 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About Jessore Express

Close