সাতক্ষীরায় এমপির মেয়েকে উত্ত্যক্ত করায় ছাত্রলীগ নেতার কারাদণ্ড

এক্সপ্রেস ডেস্ক: সাতক্ষীরায় সংসদ সদস্য (এমপি) ও জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি মুস্তফা লুৎফুল্লাহর মেয়েকে উত্ত্যক্ত করার দায়ে সাতক্ষীরা সরকারি কলেজের এক ছাত্রলীগ নেতাকে তিন মাসের কারাদ-াদেশ দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।
গতকাল রোববার সাতক্ষীরা নির্বাহী হাকিম মনিরা পারভীন এ রায় দেন। এ দিকে এ ঘটনার পরই ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা সাতক্ষীরা সরকারি কলেজের ছাত্রমৈত্রী নেতা পলাশ দাশকে মারধর করেন। বাংলাদেশ ছাত্রমৈত্রী হচ্ছে ওয়ার্কার্স পার্টির ছাত্রগণসংগঠন।
কারাদ-াদেশপ্রাপ্ত আশিকুর রহমান ছাত্রলীগ সাতক্ষীরা সরকারি কলেজের ইয়ার কমিটির সভাপতি। তিনি ওই কলেজে দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র। প্রতিবছর ‘ইয়ার কমিটি’ নামে কলেজে ছাত্রলীগের কমিটি গঠিত হয়।
সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এমদাদ শেখ জানান, সংসদ সদস্য মুস্তফা লুৎফুল্লাহর মেয়ে সাতক্ষীরা সরকারি কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্রী। একই কলেজে দ্বিতীয় বর্ষে লেখাপড়া করেন ছাত্রলীগ নেতা আশিকুর রহমান। আশিকুর প্রায়ই ওই ছাত্রীকে কলেজে যাতায়াতের পথে উত্ত্যক্ত করেন। আজও তিনি ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করেন।
ওসি এমদাদ আরো জানান, এ বিষয়ে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পাওয়ার পর পুলিশ আশিকুরকে হাতেনাতে আটক করে সরাসরি নির্বাহী হাকিম সহকারী কমিশনার (ভূমি) মনিরা পারভিনের আদালতে নিয়ে যায়। আদালত শুনানি শেষে আশিকুরকে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদ-াদেশ দেন। এর পরই তাঁকে জেলে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।
এদিকে এ ঘটনার জেরে কলেজের আশিকুর অনুগত ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা ছাত্রমৈত্রীর নেতা পলাশকে মারধর করে। পলাশ দ্রুতবেগে দৌড়ে অধ্যক্ষের কক্ষে আশ্রয় নেন। পরে ছাত্রলীগ অধ্যক্ষের কক্ষ ঘিরে ফেলে। পরে আহত অবস্থায় পলাশকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অধ্যক্ষ লিয়াকত পারভেজ বলেন, ‘এখন পরিস্থিতি শান্ত।’

Print
1166 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About Jessore Express

Close