এমপির ভাইয়ের বিরুদ্ধে যুবককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

এক্সপ্রেস ডেস্ক: কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে চোর সন্দেহে হাসান (২৩) নামে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় সাংসদের ভাইয়ের বিরুদ্ধে।

মঙ্গলবার দুপুর ৩টার দিকে রক্তাক্ত অবস্থায় তার লাশ উপজেলার তারাগুনিয়া ডাক বাংলো চত্বরে পড়ে থাকতে দেয়া যায়। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে। হাসান উপজেলার সোনাইকুন্ডি পশ্চিমপাড়া গ্রামের আবুল কাসেম ছেলে।
স্থানীয় লোকজন জানান, স্থানীয় সংসদ সদস্য (কুষ্টিয়া-১) রেজাউল হক চৌধুরীর ছোট ভাই মিন্টু চৌধুরী ও তার লোকজন চুরির অভিযোগে মঙ্গলবার সকালে হাসানকে ধরে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে। হাসানের অবস্থা খারাপ হওয়ায় সকাল ১০টার দিকে দৌলতপুর থানা পুলিশ তাকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠায়। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় জরুরি বিভাগের ডাক্তার তাকে ভর্তি না করে ফেরত পাঠায়। অবস্থা বেগতিক দেখে পুলিশ তাকে ছেড়ে দেয়। পরে তার লাশ তারাগুনিয়া ডাক বাংলো চত্বরে পড়ে থাকতে দেখা যায়।
তারাগুনিয়া বাজারের ব্যবসায়ীরা জানান, মঙ্গলবার দুপুর ৩টার দিকে একটি ভ্যানে করে তাকে তারাগুনিয়া ডাক বাংলো চত্বরে ফেলে যায়। তার শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তার পায়ে ব্যান্ডেজ ছিল। পরে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে।
সাংদের ভাই মিন্টু চৌধুরী হাসানকে পিটানোর কথা অস্বীকার করে বলেন, স্থানীয়রা তাকে ধরে গণপিটুনি দিয়ে সকালে আমার বাড়ির সামনে নিয়ে আসলে আমি তাকে পুলিশে সোপর্দ করি। আমি কোন ধরনের মারধর করিনি।
দৌলতপুর থানার ওসি শাহিদুল ইসলাম শাহিন জানান, হাসান মাদক সেবন ও চুরি করতো। সকালে স্থানীয় লোকজন তাকে মারপিট করে পুলিশে দেয়। পরে দৌলতপুর হাসপাতালে পাঠালে ডাক্তাররা তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য অন্যত্র পাঠাতে বলে।
ওসি বলেন, হাসানের বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ না থাকায় স্থানীয় ইউপি সদস্যের জিম্মায় তাকে ছেড়ে দেয়া হয়।
Print
681 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About Jessore Express

Close