ঝিনাইদহে পুলিশের গুলিতে নিহত যুবক ইবি ছাত্র মামুন

এক্সপ্রেস ডেস্ক: ঝিনাইদহ সদর উপজেলায় পোড়াহাটি ইউনিয়নের মধুপুর আড়ুয়াকান্দি কবরস্থান এলাকায় পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত যুবকের পরিচয় পাওয়া গেছে। তিনি ইসলামী ছাত্রশিবির কর্মী ও  কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সাইফুল ইসলাম মামুন (২২)। পুলিশের দাবি, ঘটনাস্থল থেকে একটি শার্টারগান, পাঁচটি হাতবোমা, গুলি, হাসুয়া ও রামদা উদ্ধার হয়েছে। ঘটনার সময় আহত হয়েছেন দুই পুলিশ সদস্য। মঙ্গলবার রাত তিনটার দিকে এ ঘটনা ঘটে।
নিহত সাইফুল শৈলকুপা উপজেলার ফুলহরি ইউনিয়নের পুটিমারি গ্রামের লুৎফর রহমানের ছেলে। তিনি ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবি বিভাগের মাস্টার্স শেষ বর্ষের ছাত্র ও শিবির কর্মী বলে স্থানীয় সূত্রগুলো নিশ্চিত করেছে। নিহতের বাবা লুৎফর রহমান ও মামাতো ভাই নাসির উদ্দীন জানিয়েছেন, গত ১ জুলাই ঝিনাইদহ শহরের পবহাটী গ্রামের টুলু মিয়ার বাড়ি থেকে সাদা পোশাকের লোকজন পুলিশ পরিচয়ে তাকে তুলে নিয়ে যায়।
ঝিনাইদহের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আজবাহার আলী শেখ দাবি করেন, মঙ্গলবার রাতে ঝিনাইদহ-মাগুরা মহাসড়কের মধুপুর আড়ুয়াকান্দি কবরস্থান এলাকায় টহল দিচ্ছিল পুলিশ। এসময় সন্ত্রাসীরা পুলিশের গাড়ি লক্ষ্য করে বোমা ছোড়ে। পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা ২৩ রাউন্ড গুলি ছোড়ে। এসময় ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ নিহত সাইফুলের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।
কথিত এই সংঘর্ষে পুলিশ কনস্টেবল ফয়সল আহমেদ ও সুমন নামে দু’জন আহত হন বলে এডিশনাল এসপির দাবি। আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে দুর্বৃত্তদের ব্যবহৃত একটি শার্টারগান, দুই রাউন্ড বন্দুকের গুলি, পাঁচটি বোমা ও তিনটি রামদা উদ্ধার করা হয় বলে পুলিশ জানায়।
ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল মর্গে নেওয়া হয়েছে।

Print
1081 মোট পাঠক সংখ্যা 3 আজকের পাঠক সংখ্যা

About Jessore Express

Close