‘ডেস্ক জব’ ধূমপানের চেয়েও ক্ষতিকর

স্বাস্থ্য ডেস্ক: অফিসের ডেস্কে বসে প্রতিদিন কেটে যায় সাত-আট ঘণ্টা, শহরের বাসিন্দাদের জন্য এটি নতুন কিছু নয়। প্রতিদিন এমন রুটিনে চলছে যাদের জীবন, তাদের জন্য সাংঘাতিক সব বিপদ ওৎ পেতে রয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে ক্যানসারের মত মরণ রোগও।

চিকিৎসকদের মতে, অনেকক্ষণ এক জায়গায় বসে থাকলে শরীরের মেটাবলিজম হার কমে যায়। এর ফলে হার্টের কার্যক্ষমতা কমে। ইনসুলিন লেভেলে তারতম্য হওয়ায় ডায়াবেটিসের আশঙ্কাও বাড়ে। অফিসে দীর্ঘক্ষণ বসে কাজ করে শরীরে যে ক্ষতি হয়, তা পূরণ করতে প্রতিদিন অন্তত এক ঘণ্টা হাঁটার পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের।

ব্যায়াম না করে সারাদিন বসে থাকা স্থূলতা বা চেন স্মোকিং-এর মতোই ক্ষতিকর বলে জানালেন বিজ্ঞানীরা। এর সঙ্গে যদি যুক্ত হয় টিভি দেখার অভ্যাস, তা হলে তো কথাই নেই। অফিসে আট ঘণ্টা বসে কাজ, বাড়ি ফিরে আরও ঘণ্টা পাঁচেক টিভির সামনে বসে কেটে যায়, তাহলে অন্তিম ঘণ্টা বাজতে আর বেশি দেরি নেই।

অফিস ও টিভির যুগলবন্দিতে আপনার শরীরে যে মারাত্মক ক্ষতি হয়, তা পূরণ করতে এক ঘণ্টার হাঁটাও যথেষ্ট নয়। শুয়ে-বসে দীর্ঘক্ষণ টিভি দেখার অভ্যেস এমনকি অফিসে টানা বসে কাজ করার চেয়েও ক্ষতিকর। কারণ সাধারণত আমরা টিভি দেখার সঙ্গে মুখরোচক অস্বাস্থ্যকর স্ন্যাকস খেয়ে থাকি। যা শারীরিক ক্ষতিকে আরও ত্বরাণ্বিত করে।

টানা এক ঘণ্টা না হেঁটে একে কয়েক ভাগে ভাগ করেও নেয়া যায় বলে জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। যেমন অফিসের লাঞ্চের পর ১৫ মিনিট করিডোরেই পায়চারি করে নিলেন বা অফিস যাওয়া বা অফিস থেকে ফেরার পথে কিছুটা রাস্তা হাঁটলেন।

সারা বিশ্বের মধ্যে স্ক্যান্ডানেভিয়ান দেশগুলোতে হেঁটে বা সাইকেলে অফিস যাওয়ার প্রবণতা সবচেয়ে বেশি।

Print
1241 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About Jessore Express

Close