যশোরের ঝিকরগাছায় ইট ফেলে ৪ পরিবারের রাস্তা বন্ধ

ইছানুর রহমান :  যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার হাজিরবাগ গ্রামের একটি রাস্তার উপর ইটভাঙ্গা(ঘ্যাস) ফেলে কয়েকটি পরিবারের যাতায়াতের পথ বন্ধ করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে কথা বলার কারণে একটিপক্ষ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মারপিট করতে এবং প্রাণনাশের হুমকি দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। ঘটনায় বাঁকড়া পুলিশ তদন্ত  কেদ্রে একটি অভিযোগ দায়ের করেছে ভুক্তভোগী পরিবার।

জানা যায়, উপজেলার হাজিরবাগ গ্রামের মৃত ছবেদ আলীর পুত্র আব্দুস সামাদ, জানাব আলী ও মনিরুল ইসলাম মনি তাদের বাড়ির পার্শ্ব দিয়ে ব্যবহারিত একটি বাইপাস সড়কের উপর ইটভাঙ্গা (ঘ্যাস) ফেলে । ফলে ঐ রাস্তার সামনে বসবাসকারী মৃত আবু তাহের মাস্টারের দুই ছেলে আবু বক্কর ছিদ্দিক ও হাবিবুর রহমান এবং মতিয়ার রহমানের ছেলে আবুল কালাম ও ভ্যানচালক আমিরুল ইসলামের বাড়িতে যাওয়ার পথ বন্ধ হয়ে যায়। ভুক্তভোগি পরিবার বিষয়টি বলতে গেলে আব্দুস সামাদ ও তার ভাগ্নে আব্দুর রাজ্জাক ছুরি ও রড নিয়ে মারপিট করতে ছুটে আসে এবং প্রাণনাশের হুমকি দেয় বলে লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করেছেন আবুল কালামের স্ত্রী সালমা খাতুন।
ভুক্তভোগী ভ্যানচালক আমিরুল ইসলাম জানান, আমি ভ্যান নিয়ে বাড়ি যেতে পারছি না। এর আগেও কয়েকবার রাস্তা বন্ধ করেছিল। স্থানীয়ভাব শালিশী বৈঠকের মাধ্যমে তা নিষ্পত্তি করা হয়েছিল।
ভুক্তভাগী আবু বক্কর ছিদ্দিক জানান, ওরা সন্ত্রাসী প্রকৃতির মানুষ এবং গত জোট সরকার আমলে সন্ত্রাসী  কর্মকান্ড পরিচালনা করত। প্রায়ই বিভিন্ন বিষয় নিয়ে গন্ডোগোল করার চেষ্টা করে। কিছু বল্লেই ছুরি, দা, লাঠি ও রড নিয়ে নারী-পুরুষ মারপিট করতে ছুটে আসে এবং প্রাণনাশের হুমকি দেয়। আমরা বাঁকড়া বাজারে ব্যবসা করি। বর্তমানে আমরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।
ভুক্তভোগী হাবিবুর রহমান জানান, ঐ রাস্তায় উভয়পক্ষের জমি আছে। তারপরও ওরা বারবার গন্ডোগোল করার চেষ্টা করে আমাদের পথ আটকাতে চায়। এর একটা সমাধান হওয়া উচিত।
এ ব্যাপার বাঁকড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এস আই হাফিজ জানান, বিষয়টি নিয়ে উভয়পক্ষকে শুক্রবার বিকালে ডাকা হয়েছে। শুনে বুঝে একটা সুষ্ঠ সমাধান করতে পারবো বলে আশা করছি।
Print
359 মোট পাঠক সংখ্যা 1 আজকের পাঠক সংখ্যা

About Jessore Express

Close